সোমবার, ১৫ অগাস্ট ২০২২, ০৯:৫৩ অপরাহ্ন

অপহরণকারী দলের মূলহোতাসহ গ্রেপ্তার-৩ : চট্টগ্রাম থেকে অপহৃত শিশু ২০ ঘন্টা পর চকরিয়ায় উদ্ধার

মুকুল কান্তি দাশ; চকরিয়া :

চট্টগ্রাম মহানগরীর বায়েজিদ বোস্তামি থানা এলাকার একটি ভাড়া বাসা থেকে দুই বছর বয়সি শিশু জন্নাতুল ফেরদৌস মাহিকে অপহরণের ২০ ঘন্টা পর কক্সবাজারের চকরিয়া থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। মুক্তিপণ আদায়ের উদ্দ্যেশে বুধবার সকাল ৭ টায় ওই শিশুকে অপহরণ করা হয়।

৮ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার বিকাল ৩ টায় তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় চকরিয়া পৌরসভার করাইয়াঘোনা থেকে শিশুকে উদ্ধার ও পৃথক দুটি স্থান থেকে অপহরণকারী দলের তিন সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

উদ্ধার হওয়া অপহৃত শিশু জন্নাতুল ফেরদৌস মাহি সিলেটের শ্রীমঙ্গলের কমলগঞ্জলের ভেড়াচড়ার মো.আশিকের মেয়ে। তারা চট্টগ্রাম মহানগরীরর বায়েজিদ বোস্তামি এলাকায় ভাড়া বাসায় বাস করতো। আশিক রাজমেস্ত্রীর সহায়তাকারী ও তার স্ত্রী রাবেয়া বেগম গার্মেন্টস কর্মী।

গ্রেপ্তারকৃত হলেন- চকরিয়া উপজেলা চিরিংগা ইউনিয়নের বুড়িপুকুর এলাকার নুর মোহাম্মদের ছেলে মোহাম্মদ সোহেল (২৫), একই এলাকার জহির আহমদের ছেলে মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর (২৫) ও করাইয়াঘোনার বশির আহমদের ছেলে মোহাম্মদ রাশেদ (২২)। অপহৃত শিশুর বাবা আশিক ও অপহরণকারী দলের নেতা সোহেল রাজমিস্ত্রীর সহায়তাকারী হিসেবে কাজ করার সুবাদে উভয়ের মধ্যে পরিচয় ও আশিকের বাড়িতে সোহেলের যাতায়াত ছিল।

পুলিশ ও আত্মীয়রা জানায়, বুধবার সকালে মা রাবেয়া গার্মেন্টসে চলে যায়। বাবা আশিক যায় রাজমেস্ত্রীর কাজ করতে। তারা দুপুরে বাসায় ফিরে কন্যা শিশু মাহিকে না পেয়ে আশপাশে খোঁজ করে। পরে শরণাপন্ন হয় থানার। এদিন বিকালে মো.আশিক বাদি হয়ে অজ্ঞাত ব্যাক্তিদের আসামী করে একটি অপহরণ মামলা (নং-১৮, তাং-০৭.১২.১৬ইং) দায়ের করেন বায়েজিদ থানায়। মামলার পর ওই থানা পুলিশ মোবাইল ট্রেকিং এর মাধ্যমে জানতে পারে অপহরণকারীরা কক্সবাজারের চকরিয়ায় অবস্থান করছে। পাশাপাশি অপহরণকারীরা মুঠোফোনে বুধবার বিকালে এক লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবী করে। দাবীকৃত ওই টাকা না পেয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে ফের মুঠোফোনে মুক্তিপণ হিসেবে ৫০ হাজার টাকা বিকাশের মাধ্যমে দিতে বলে। এঘটনা বায়েজিদ বোস্তামি থানা পুলিশ চকরিয়া থানা পুলিশকে অবহিত করে।

চকরিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো.কামরুল আজম বলেন, বায়েজিদ বোস্তামি থানা পুলিশের কাছ থেকে খবর পেয়ে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তা নিয়ে বৃহস্পতিবার বিকাল দুইটার দিকে চিরিংগা ইউনিয়নের মাছঘাটা এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করি ওই ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডস্থ বুড়িপুকুর এলাকার নুর মোহাম্মদের ছেলে সোহেলকে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী চকরিয়া পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডস্থ করাইয়াঘোনার মৃত কবির আহমদের ছেলে বশির আহমদের বাড়িতে অভিযান চালাই। ওই বাড়ি থেকে অপহৃত শিশু মাহিকে উদ্ধার ও অপহরণকারী দলের অপর দুই সদস্য রাশেদ ও জাহাঙ্গীরকে গ্রেপ্তার করি।

অভিযানে চকরিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো.কামরুল আজম, থানার এসআই সুকান্ত চৌধুরী, বায়েজিদ বোস্তামি থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মাইনউদ্দিন ও এসআই মোহাম্মদ আইয়ুবসহ দুই থানার অন্তত ২০ জন পুলিশ অংশ নেয়।

ওসি কামরুল আজম আরো বলেন, চকরিয়া থেকে উদ্ধার করা অপহৃত শিশু মাহি ও গ্রেপ্তার হওয়া তিন অপহরণকারীকে বায়েজিদ বোস্তামি থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

https://www.facebook.com/coxviewnews

Design BY Hostitbd.Com