শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২, ০৩:৫৮ অপরাহ্ন

ঈদগাঁওতে পোল্ট্রি ফার্ম বন্ধের দাবীতে… লিখিত আবেদনের এক সপ্তাহ পার হলেও আশানুরূপ সাড়া পাননি ভুক্তভোগীরা

sagor-10-10-16-news-1pic

এম আবু হেনা সাগর; ঈদগাঁও :

কক্সবাজার সদর উপজেলার ঈদগাঁওতে নির্মানাধীন পোল্ট্রি ফার্ম বন্ধের দাবীতে জেলা প্রশাসকসহ কর্তৃপক্ষের নিকট লিখিত আবেদনের এক সপ্তাহ পেরুলেও আশানুরূপ সাড়া পাননি ভুক্তভোগীরা। এমনটাই অভিযোগ মিফতাহুল উলুম তাহফিজুল কোরআন মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদকের। যাতে করে পাশ্ববর্তী বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার বিঘ্ন সৃষ্টিসহ দূর্গন্ধে বিষিয়ে উঠার আশঙ্কা প্রকাশ করছেন তারা।

সূত্র মতে, ঈদগাঁও ইউনিয়নের কালিরছড়া বাজারের পাশ্বস্থ এলাকায় সালাহ উদ্দীন এলাকাবাসীর বাঁধাকে তোয়াক্কা না করে বীরদর্পে ধানী জমির উপর গাছ দিয়ে পোল্ট্রি ফার্ম নির্মাণ করতে যাচ্ছে। যাতে করে ফার্মের পার্শ্বস্থ কালিরছড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, মিফতাহুল উলুম মাদ্রাসা, হেফজখানা ও এতিমখানার শিক্ষার্থীরা চরম অসুবিধার সম্মুখীন হবে। এতে পার্শ্ববর্তী মসজিদের মুসল্লী ও কালিরছড়া হয়ে মাছুয়াখালী, চৌফলদন্ডী, নতুন মহাল যাতায়াত সড়কের প্রতিনিয়ত হাজার হাজার লোকজন চলাচলে দুর্গন্ধে বিষিয়ে উঠবে। ফলে যাতায়াতে বিঘ্ন সৃষ্টি হবে। অন্যদিকে ঐ স্থানে ঐতিহ্যবাহী কবরস্থান রয়েছে। উক্ত কবরস্থানে প্রতিনিয়ত লোকজন তাদের আত্মীয় স্বজনদের কবর জিয়ারত করতে আসে। তারাও নানাভাবে বিড়ম্বনার শিকার হবে।

অপরদিকে মহাসড়কের পার্শ্ববর্তী স্থানে মসজিদ থাকায় পর্যটকসহ দুর পাল্লার যাত্রীরা সেখানে নামাজ আদায় করে থাকে। পোল্ট্রি ফার্মের বর্জ্যরে দূর্গন্ধে তাদের সমস্যা হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেন মুসল্লীরা। আবার পোল্ট্রি ফার্মের লাগোয়া ঐতিহ্যবাহী মিফতাহুল উলুম মাদ্রাসার শিক্ষার্থী, হেফজখানার ছাত্ররা গভীর রাত্রে কোরআন শরীফ পড়তে গিয়ে নানা সমস্যা পড়বেন। সে সাথে ফার্মের দূর্গন্ধের ফলে ছাত্রদের নানা রোগ ব্যাধি হওয়ার আশঙ্কায় রয়েছেন সচেতন অভিভাবক মহল। আবার এ পোল্ট্রি ফার্ম বন্ধ না হলে অদূর ভবিষ্যতে মাদ্রাসার পাশ্ববর্তী স্থানে আরো কয়েকটি ফার্ম হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলেও জানা যায়।

এদিকে পোল্ট্রি ফার্ম বন্ধের দাবীতে মিফতাহুল উলুম তাহফিজুল কোরআন মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক শওকত আবছার চৌধুরী ও কালিরছড়া বাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ পরিচালনা কমিটির মতওয়াল্লী আবু হাসনাত চৌধুরী স্বাক্ষরিত একটি লিখিত আবেদন এলাকাবাসীর গণস্বাক্ষর সহকারে জেলা প্রশাসক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, পরিবেশ অধিদপ্তর, কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (কউক), জেলা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক, ঈদগাঁও পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে প্রেরণ করে।

এ ব্যাপারে শওকত আবছার চৌধুরী মুঠোফোনে এ প্রতিনিধিকে আক্ষেপ কন্ঠে জানান, হতাশ আমরা এলাকাবাসী তথা ভুক্তভোগীরা। লিখিত আবেদনের এক সপ্তাহ পার হলেও আজ অবদি কোন প্রকার সাড়া পাননি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে। তবেও অপেক্ষায় আছেন বলে জানান।

অন্যদিকে এলাকার সচেতন ব্যক্তি ও সদর আ’লীগের নির্বাহী সদস্য ইফতেখারুল আলম চৌধুরী রুমেল জানান, কালিরছড়া বাজারের পাশ্ববর্তী স্থানে এ পোল্ট্রি ফার্ম হলেই এলাকার পরিবেশ দূষিত হওয়ার পাশাপাশি ছাত্রদের লেখাপড়ার ব্যাঘাতসহ মুসল্লীরা নামাজ আদায় করতে সমস্যা হবে। এটি বন্ধে প্রশাসনের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেন তিনি। সদর যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদকের মতে, অবিলম্বে মাদ্রাসা, হেফজখানা ও প্রাইমারী স্কুল সংলগ্ন স্থানে গড়ে উঠা পোল্ট্রি ফার্ম বন্ধ করা হোক। অন্যথায় শিক্ষাক্ষেত্রে ব্যাপক ক্ষতি হবে। অপরদিকে সাধারণ লোকজনের মতে, এ পোল্ট্রি ফার্ম যদি বন্ধ না হয় তাহলে এলাকার কোমলমতি ছাত্রছাত্রীদের শিক্ষা জীবন অনিশ্চয়তার মুখে পড়ার আশঙ্কা প্রকাশ করেন। নির্মাণাধীন পোল্ট্রি ফার্মের মালিক অভিযুক্ত সালাহ উদ্দীনের সাথে যোগাযোগ সম্ভব হয়নি।

https://www.facebook.com/coxviewnews

Design BY Hostitbd.Com