Home / প্রচ্ছদ / সাম্প্রতিক... / নির্বাচন সংক্রান্ত / ঈদগাঁওবাসীর ভাগ্যোন্নয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে ছৈয়দ আলম মাঠে শক্ত অবস্থানে

ঈদগাঁওবাসীর ভাগ্যোন্নয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে ছৈয়দ আলম মাঠে শক্ত অবস্থানে

Sayed Alam - Sagor File-1

এম আবু হেনা সাগর; ঈদগাঁও :

৪ জুন ৬ষ্ঠ ধাপে কক্সবাজার সদরের বাণিজ্যিক এলাকা হিসাবে সুপরিচিত ঈদগাঁও ইউনিয়নের আসন্ন ইউপি নির্বাচনে জনগণের ভাগ্যোন্নয়নের লক্ষ্যে এবার স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে শক্ত অবস্থানে রয়েছে ছৈয়দ আলম। এমনকি তাকে ঘিরে সাধারণ ভোটারদের মাঝে আশার আলো দেখা দিয়েছে। ইতিমধ্যে এ প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার পর থেকেই ইউনিয়নের প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলে সাধারণ ভোটার সমাজের মাঝে মিশে যাওয়ার লক্ষ্যে হাটি হাটি পা পা করে এগিয়ে যাচ্ছে। এছাড়াও তার প্রার্থী হওয়ার সংবাদে ইউনিয়ন জুড়ে শুরু হয়েছে নানা জল্পনা-কল্পনা।

সরেজমিনে ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকার ভোটারদের সাথে কথা বলে জানা যায়, আসন্ন নির্বাচনকে সামনে রেখে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসাবে বঙ্গবন্ধু পরিষদ মক্কা মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মাইজ পাড়ার কৃতি সন্তান ছৈয়দ আলম অনেকটা ভোটযুদ্ধে এগিয়ে। এমনকি তিনি দীর্ঘদিন ধরে ঈদগাঁওয়ের নানা গ্রামগঞ্জে আবাল-বৃদ্ধ-বণিতার সাথে একটা সুসম্পর্ক বজায় রেখে চলছে। যেসব প্রার্থী দৌড়ঝাপ শুরু করেছে তাদের অধিকাংশই জনগণের দোড়গোড়ায় নিজেদের তেমন উপস্থাপন করতে না পারলেও ছৈয়দ আলম সেক্ষেত্রে একধাপ এগিয়ে বললেই চলে। অপরাপর প্রার্থীদের তুলনায় সৎ-যোগ্য ও মার্জিত ব্যবহারের ফলে এ প্রার্থী ইউনিয়নের সর্বপেশার লোকজনের কাছে বেশ গ্রহণযোগ্য স্থান করে নিয়েছে।

এছাড়া তিনি বিগত দীর্ঘকাল ধরে ইউনিয়নবাসীর সুখে-দুঃখে, আপদে-বিপদে নানা সামাজিক কর্মকান্ডে নিজেকে সম্পৃক্ত রেখে এলাকাবাসীর পক্ষে অবস্থান নিয়েছিল। যা এলাকার লোকজনের সাথে কথা বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। তাই তারা আগামী নির্বাচনে ছৈয়দ আলমের মত একজন যোগ্য প্রার্থীকে পেয়ে মহাখুশিতে উৎফুল্ল হয়েছেন গ্রামগঞ্জের লোকজন। তাই এবার তিনি বৃহৎ পরিসরে জনগণের সেবা করতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। আসন্ন নির্বাচনে তিনি একজন স্বতন্ত্র কিংবা জনগণের প্রার্থী হিসাবে ভোটের ময়দানে লড়াই করার কথা জানান।

এদিকে গত ৯ মে ঈদগাঁওয়ের বৃহত্তর মাইজ পাড়ার সর্বপেশার লোকজন কর্তৃক এক মতবিনিময় সভার মাধ্যমে তাকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে সমর্থন প্রদান করেন। ঐ সমর্থন নিয়ে তিনি ১০ মে মনোনয়ন পত্র জমা দেন। ১২ মে মনোনয়নপত্র বাছাইকালে চেয়ারম্যান প্রার্থী ছৈয়দ আলম টিকে যান। স্বচ্ছ ও সুষ্ঠু নির্বাচন হলে তিনি জনগণের বিপুল ভোটে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। এ ব্যাপারে তিনি ইউনিয়নের সর্বস্তরের জনগণের সার্বিক সহযোগিতা ও দোয়া কামনা করেন।

%d bloggers like this: