শুক্রবার, ১৯ অগাস্ট ২০২২, ০৪:২৪ অপরাহ্ন

শিরোনাম
বিএনপির জন্য অপেক্ষা করবে নির্বাচন কমিশন লামায় গৃহবধূর মৃত্যু নিয়ে ধূম্রজাল লামায় বিদ্যুৎ যাচ্ছে অটোরিকশা-টমটমের পেটে লামায় ৬৯ লিটার চোলাই মদসহ ব্যবসায়ী আটক ১ ঈদগড়ের চালক শহিদুল হত্যাকান্ডে আটক আসামীদের জামিন না মঞ্জুর এবং পলাতক আসামীদের গ্রেফতারের দাবী জানিয়েছেন অসহায় পিতা শুভ জন্মাষ্টমী আজ সারা দেশে সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে রামুতে আ’লীগের সমাবেশ অনুষ্ঠিত দেশব্যাপী সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে ঈদগাঁওতে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ কক্সবাজার সৈকতে নিখোঁজ পর্যটকের মরদেহ উদ্ধার  বিশ্বের সবচেয়ে পাতলা ভাঁজযোগ্য ফোন দেখাল শাওমি ঘোষণার আগেই বাড়লো চিনির দাম

ঈদগাঁও রেঞ্জে চেক বিতরণীতে বক্তারা – দূর্যোগ ঝুঁকি মোকাবেলায় সামাজিক বনায়নের বিকল্প নেই

নাছির উদ্দীন পিন্টু, ঈদগাঁও :

কক্সবাজারের ঈদগাঁওতে সামাজিক বনায়ন সুরক্ষায় সম্মিলিত প্রচেষ্টার উপর গুরুত্বারোপ করেছেন বক্তারা। ২২ ডিসেম্বর দুপুরে ঈদগাঁও রেঞ্জের ভোমরিয়াঘোনা বিট কার্যালয় মাঠে সড়ক বনায়নের উপকারভোগীদের মাঝে চেক বিতরণকালে বক্তারা আরো বলেন, সবুজ পৃথিবী গড়ে তোলা ও পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় সকলকে এগিয়ে আসতে হবে। সামাজিক বনায়ন রক্ষা হলে উপকারভোগীরা আর্থিকভাবে লাভবান ও জীব বৈচিত্রের ভারসাম্য রক্ষা হবে। সরকার জনকল্যাণে নানা প্রকল্প গ্রহণ করেছে। তার অন্যতম একটি হচ্ছে সামাজিক বনায়ন। যা বনবিভাগের অনেক স্মৃতি বহন করছে।

কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগীয় বন কর্মকর্তা কেরামত আলী মল্লিকের সভাপতিত্বে লভ্যাংশের এ চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে মূখ্য ব্যক্তি ছিলেন কক্সবাজার সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শাহিনুর ইসলাম।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উত্তর বনবিভাগের সদর সহকারী বন সংরক্ষক মো. বেলায়েত হোসেন, ঈদগাঁও চেয়ারম্যান ছৈয়দ আলম। আরো বক্তব্য দেন ফুলছড়ি রেঞ্জের সহকারী বন সংরক্ষক গবেষক মো. ইউছুপ, ইসলামাবাদের সাবেক প্যানেল চেয়ারম্যান জসিম উদ্দীন, ওয়ার্ড আ.লীগ নেতা নুরুল হুদা, সাংবাদিক নাছির উদ্দীন পিন্টু।

উপস্থিত ছিলেন অবসরপ্রাপ্ত সাবেক প্রধান শিক্ষক ফরিদুল আলম, ঈদগাঁও প্রেস ক্লাব সভাপতি মো. রেজাউ করিম, বীমা কর্মকর্তা নাছির মিয়া, যুবলীগ নেতা মনজুর আলম প্রমুখ। শুরুতে ইউএনওকে ফুল দিয়ে বরণ করেন মোজাম্মেল হক।

ঈদগাঁও রেঞ্জের ফরেষ্ট রেঞ্জার রেঞ্জ বন কর্মকর্তা মো. আবদুল মতিনের উপস্থাপনায় আরো ছিলেন ফুলছড়ি রেঞ্জ কর্মকর্তা কাজী মোকাম্মেল কবির, পূর্ণগ্রাম বিট কর্মকর্তা মো. আওলাদ মিয়াসহ অন্য বন কর্মকর্তা, কর্মচারী ও বিপুল সংখ্যক উপকারভোগী পুরুষ ও মহিলা। ২০০৪-০৫ সনের সৃজিত এ সামাজিক বনায়নের চেক বিতরণকালে বক্তারা বলেন, নবায়নযোগ্য এ বনায়নকে দেখভাল ও রক্ষণাবেক্ষণ করতে হবে। টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে সরকারের অর্থায়নে উপকারভোগীরা বিনা বিনিয়োগ ও বিনা ঋণে এ সুবিধা পাচ্ছেন। অর্থনৈতিক কল্যাণ ও বিপন্ন পৃথিবীকে টিকিয়ে রাখতে এবং জলবায়ুজনিত বৈশি^ক উষ্ণতা মোকাবেলায় সবুজ বনাঞ্চলের ভুমিকা অপরিসীম। সরকার বনায়নে সামাজিক সম্পৃক্ততার সুযোগ সৃষ্টি করে সংরক্ষিত বনাঞ্চল রক্ষায় কাজ করে চলেছে। তারা আরো বলেন, মানসিকতার পরিবর্তনের মাধ্যমে মানুষকে সবুজ ও বৃক্ষ প্রেমিকে পরিণত হতে হবে। চিহ্নিত দূষ্কৃতকারীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। অবৈধ দখল থেকে বিরত থাকতে হবে।

বক্তারা আজকের চারাগাছ আগামীতে মহিরূপে রূপান্তরিত হবে উল্লেখ করে বলেন, বনবিভাগ উপকারভোগীদের সাথে যে চুক্তিতে আবদ্ধ হয়েছিল এখন সে চুক্তি পূরণ করতে চলেছে। তাই বনায়ন প্রসারে উপকারভোগীদেরও দায়-দায়িত্ব রয়েছে।

বক্তারা সাম্প্রতিক ঘূর্ণিঝড় রোয়ানুসহ অন্যান্য প্রাকৃতিক দূর্যোগের কথা উল্লেখ করে বলেন, জলবায়ু পরিবর্তন জনিত কারণে উন্নয়নশীল এদেশ সবচে ক্ষতিগ্রস্থ। দরিদ্র দেশ হিসাবে দূর্যোগ বহন করার মত শক্তি বাংলাদেশের নেই। প্রাকৃতিক বিরূপ আবহাওয়া, অতিবৃষ্টি, খরা ও অন্যান্য দূর্যোগ কিছুটা বহন করতে পারে কেবল গাছপালাসমূহ। তাই ঝুঁকি মোকাবেলায় প্রশমন ও অভিযোজনে সবুজ গাছপালা ও বনাঞ্চল যে কোন উপায়ে টিকিয়ে রাখতে হবে। বনকে সুষ্ঠুভাবে বাঁচিয়ে রাখা গেলে উপকূলীয় এ জেলায় প্রাকৃতিক দূর্যোগ অনেকাংশে হ্রাস পাবে। রক্ষক যেন ভক্ষকের ভূমিকায় অবতীর্ণ না হয় সে ব্যাপারে সকলকে সজাগ থাকতে হবে। শেষে অতিথিরা ২১ জন উপকারভোগীর মাঝে ৭ লাখ ২৩ হাজার ৬২৩ টাকার চেক বিতরণ করেন।

https://www.facebook.com/coxview

Design BY Hostitbd.Com