Home / প্রচ্ছদ / সাম্প্রতিক... / ঈদগাহ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের’৭৫ ব্যাচের মিলনমেলায় বক্তারা- পুরনো দিনের স্মৃতি এখনো ক্ষণে ক্ষণে মনে পড়ে

ঈদগাহ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের’৭৫ ব্যাচের মিলনমেলায় বক্তারা- পুরনো দিনের স্মৃতি এখনো ক্ষণে ক্ষণে মনে পড়ে

নিজস্ব প্রতিনিধি; ঈদগাঁও :

কক্সবাজার সদর উপজেলার ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ঈদগাহ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি’ ৭৫ ব্যাচের পুনর্মিলনী (মিলন মেলা) অনুষ্ঠান ১৪ মার্চ দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত হয়েছে।

জানা যায়, অত্র বিদ্যালয়ের ৭৫ ব্যাচের শিক্ষার্থীদের প্রতিবছরের ন্যায় এবছরও পঞ্চম বারের মত ঝাঁকজমকপূর্ণ পরিবেশে রামু রাবার বাগানস্থ ডাক বাংলোর নিরিবিলি পরিবেশে এবছর অত্র ব্যাচের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে অত্র ব্যাচের শিক্ষার্থীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নুর ছিদ্দিক, ছানা উল্লাহ, মাষ্টার হাবিব উল্লাহ, অধ্যাপক ফিরোজ আহমদ, বজল আহমদ, সৃজলা পাল, অধ্যাপক মোস্তাক আহমদ, ইছহাক কামাল, ছৈয়দ উল্লাহ, মোঃ আলম, নুরুল আমিন, সাজেদা বেগম, জাফর আলম হেলালী, ফরিদুল আলম চেয়ারম্যান, একরামুল হক, জহিরুল হক, রেজিয়া আক্তার, আবুল বশর, ছালেমা সিকদার, মাষ্টার মোক্তার আহমদ, শফিউল আজম সাজ্জাদ, আবুল হাসনাত চৌধুরী, গোল ছাবেরা চৌধুরী, কলিমুন্নেছা, জেবুন্নেছা, জুবাইদা সিদ্দিকী, ফিরোজা আমিন বেবি, মাষ্টার মোস্তফা, রোজিনা, ছালেহা বেগম, ইমাম হাসান, রাশেদা বেগম, ছাদেকা জাফর ও শামশুদ্দোহাসহ আরো অনেকে।

এ মহতী উৎসব কিংবা মিলন মেলায় মধ্যে পরিচিতি পর্ব, পুরনো বন্ধুদের অভিমত প্রকাশ, সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা, কবিতাবৃত্তি, র‌্যাফেল ড্র, সবাইকে প্রীতি উপহার, ভোজন, ভাগ্যবতী নারীসহ ইত্যাদি ইভেন্ট অনুষ্ঠানমালায় ছিল।

এমনকি এ অনুষ্ঠানটির প্রথম পর্বে নুর ছিদ্দিক, ২য় পর্বে অধ্যাপক ফিরোজ আহমদ ও তৃতীয় পর্বে ছানা উল্লাহ সভাপতিত্ব করেন। এতে উপস্থিত ছিলেন দৈনিক আজকের কক্সবাজারের ঈদগাঁওস্থ নিজস্ব প্রতিনিধি এম. আবুহেনা সাগর।

স্মৃতিচারণকালে তারা বলেন, স্কুল জীবনের স্মৃতি বারবার দোলা দিয়ে যায়। এখনো ক্ষণে ক্ষণে মনে পড়ে ফেলে আসা হারানো দিনের ইতিকথা। যৌবন যার যুদ্ধে যাওয়ার শ্রেষ্ঠ সময় তার। সে যৌবনকে হারিয়ে আজ মধ্য বয়সে এসে পৌছেছি আমরা। আমাদের এ মিলনমেলার স্মৃতি যেন আজীবন অক্ষুন্ন থাকে এমনটাই প্রত্যাশা করেন অনেকে। এ চল্লিশ বছরে নানা স্মৃতি চলে গেছে বিস্মৃতির গহীনে। কতেক স্মৃতি জেগে আছে কারো কারো সাথে আলাপ চারিতায়, যোগাযোগ, আনুষ্ঠানিকতায় কিংবা নিবৃত্তে। কেউ কেউ দেশ-বিদেশে আছে কর্তব্য পালনে, কেউ কেউ আবার চলে গেছে না ফেরার দেশে। শোক আর সুখের মিশ্র অনুভ‚তি থাকছেই। তবু আমরা অন্তত বছরের একবার হলেও সবাই অতীততে রোমন্থন করতে মিলতে চাই, মজা পাই সবাই। ফুলেল শুভেচ্ছা বিনিময়, আড্ডা, খাওয়া-দাওয়া, ভ্রমণ সবই হয়। আবার জীবন স্রোতের টানে নিজের গন্ডীতে ফিরে যাই এক এক করে।

এ নান্দনিক অনুষ্ঠানের মাঝ পর্বে ৭৫ ব্যাচের বন্ধুদের মধ্যে চিরতরে হারানো মরহুম মোহাম্মদ ছৈয়দ নুর, মরহুম এহেছানুল হক চৌং, মরহুম মোহাম্মদ অলী বকসু, মরহুম ফোরকান আহমদ ও স্বর্গীয় গীতা রাণী পালের স্মরণে এক মিনিট দাড়িয়ে নিরবতা পালন করা হয়।

অপরদিকে শ্রদ্ধাভাজন শিক্ষকদের মধ্যে যাদের হারিয়েছেন তাদের মধ্যে শ্রদ্ধেয় মরহুম সুলতানুল আলম চৌং, আবদুর রহমান, মৌলানা মোঃ ইউছুপ, ছৈয়দুল আলম চৌং, মোহাম্মদ মিয়া, অবলা কান্তি, মথুরা বিকাশ পাল, বিধূ ভোষণ দে, অসীম কুমার পাল ও গোপাল কৃষ্ণ শর্মার প্রতি শোক প্রস্তাব করা হয়। সব মিলিয়ে এ অনুষ্ঠানটি নিরিবিলি পরিবেশে ভালই কেটেছে।

Leave a Reply