রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৪:৩০ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
বিএনপির জন্য অপেক্ষা করবে নির্বাচন কমিশন আলীকদমে দর্শকের ওপর ক্ষেপে ফাইনাল খেলার ট্রফি ভাঙলেন ইউএনও আলীকদমে ট্রফি ভেঙ্গে ভাইরাল ইউএনও ঈদগাঁওতে অর্ণবের উদ্যোগে কোভিড প্রতিরোধে টাউন বৈঠক অনুষ্ঠিত লামায় বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন ও পরিদর্শনে পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর কক্সবাজারে চারদিন ব্যাপী শেখ হাসিনা বই মেলার উদ্বোধন ঈদগাঁওতে আসন্ন দূর্গাপূজা উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত  কক্সবাজারে শেখ হাসিনা বইমেলার উদ্বোধন : সম্মাননা পেলেন ঈদগাঁওর শিক্ষক খুরশীদুল জন্নাত সাফ গেমসে নারী ফুটবলারদের পাহাড়ের নারী খেলোয়াড়দের ৫০ হাজার টাকা ও সংবর্ধনার ঘোষণা দিয়েছেন পার্বত্য মন্ত্রী সরকারি চাকরির আবেদনে ৩৯ মাস ছাড় ‘প্রচারবিমুখ এই স্কুলটি সত্যিই অন্যরকম’—বিচারপতি হাবিবুল গনি”

ঈদগড়ের চালক শহিদুল হত্যাকান্ডে আটক আসামীদের জামিন না মঞ্জুর এবং পলাতক আসামীদের গ্রেফতারের দাবী জানিয়েছেন অসহায় পিতা


কামাল শিশির; রামু :

কক্সবাজার রামু উপজেলার ঈদগড়ের মোটর সাইকেল চালক শহিদুল ইসলাম হত্যাকান্ডে আটক আসামীদের জামিন না দেওয়ার জন্য এবং পলাতক আসামীদের গ্রেফতার করার দাবী জানান গরীব -অসহায় শোকাহত পিতা ইছহাক মিয়া।

প্রাপ্ত তথ্যে জানা যায়, ঈদগড় ৩ নং ওয়ার্ড চরপাড়া এলাকার ইছহাক মিয়ার ৩য় পুত্র শহিদুল ইসলাম এর সাথে ৫নং ওয়ার্ড বড়বিল চরপাড়া এলাকার রশিদ আহমদ এর মেয়ে রোজিনা আক্তারের সাথে প্রেম সংক্রান্ত ঘটনার জের ধরে রোজিনাসহ তার পরিবারের লোকজনের হাতে চলতি বছরের ১৯ এপ্রিল নির্মম ভাবে খুন হন শহিদুল ইসলাম।

এঘটনায় রোজিনাসহ ৯ জনকে আাসামী করে নাইক্ষ্যংছড়ি থানায় নিহতের বড় ভাই আবদুল জব্বার বাদী হয়ে ২১ এপ্রিল মামলা দায়ের করেন। যার নং-১৩। মামলাটি তদন্ত করছেন নাইক্ষ্যংছড়ি থানার আওতাধীন বাইশারী কাগজিখোলা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ শোভন কুমার সাহা।

মামলা এন্টির পর পুলিশ ২২ এপ্রিল বডবিল এলাকা হতে ১নং আসামী রোজিনাকে আটক করে। এছাড়া ২নং আাসামী আনোয়ার হোসেনকে ঈদগড় ইউপি চেয়ারম্যানসহ স্থানীয় জনতা আটক উত্তর পুলিশকে সৌপর্দ করেন। তারা ২ জনেই বর্তমানে বান্দরবান জেলখানায় বন্দী আছেন। অন্য ৭জন আসামীরা পলাতক রয়েছে। এমনকি তারা ধরা ছোঁয়ার বাহিরে চলে গেছেন।

পলাতক আসামীরা গ্রেফতার না হওয়ায় শংকায় দিন কাটাচ্ছেন নিহত শহিদুল ইসলাম এর পরিবার পরিজন।

নিহতের পিতা ইছহাক মিয়া জানান,রোজিনাসহ আাসামীরা আমার ছেলে শহিদুল ইসলামকে নির্মম ভাবে হত্যা করেছে। রোজিনা ডেলিভারি রোগীর কথা বলে ডেকে নিয়ে এসিড নিক্ষেপ করে উপর্যপুরি চুরির আঘাত করে বাইশারী রাঙ্গাঝীরি রাবার বাগান এলাকায় হত্যা করে। যা পৃথিবীর কোন পিতা মেনে নিতে পারে না।

তিনি আরো জানান, আটক ১নং ও ২নং আসামী জামিনে মুক্ত হওয়ার জন্য হাইকোর্ট সহ বিভিন্ন দপ্তরে প্রচেস্টা চালাচ্ছে।

তাদেরকে জামিন না দেওয়ার জন্য এবং পলাতক আসামীদেরকে গ্রেফতার করতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাসহ বিজ্ঞ আদালতের নিকট আকুল আবেদন জানান।

মামলা তদন্ত কর্মকর্তা জানান, তিনি নিজেই আটক আসামীদের জামিন না দিতে আদালতে আবেদন করেছেন এবং পলাতক আসামীদের গ্রেফতার করতে বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে যাচ্ছেন।

https://www.facebook.com/coxview

Design BY Hostitbd.Com