Home / প্রচ্ছদ / সাম্প্রতিক... / জীব ও প্রকৃতি / ঈদগড়ে ২টি মায়া হরিণ উদ্ধার

ঈদগড়ে ২টি মায়া হরিণ উদ্ধার

https://i0.wp.com/coxview.com/wp-content/uploads/2022/01/Deer-Kamal-21-1-22.jpg?resize=552%2C414

ঈদগড়ে ২টি মায়া হরিণ উদ্ধার

কামাল শিশির; রামু :

কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের আওতাধীন ঈদগড় রেঞ্জ কর্তৃক লোকালয়ে চলে আসা দুটি মায়া হরিণ উদ্ধার করা হয়েছে।

বনবিভাগ সূত্রে জানা যায়, কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মোঃ আনোয়ার হোসেন সরকারের নির্দেশে ঈদগড় রেঞ্জ কর্মকর্তা মোঃ মোস্তাফিজুর রহমানের নেতৃত্বে ঈদগড় সদর বিটের বৌদ্ধপাড়া এবং তুলাতলী বিটের ছকিরাকাটা এলাকা থেকে লোকালয়ে চলে আসা দুটি লাল হরিণ শাবক উদ্ধার করা হয়েছে।

২০ জানুয়ারি ( বৃহস্পতিবার) গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ঈদগড় রেঞ্জের রেঞ্জ কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমানের নেতৃত্বে এবং স্টাফদের সহযোগিতায় বনাঞ্চল থেকে লোকালয়ে চলে আসা দুটি লাল হরিণ শাবক উদ্ধার করা হয়।

ঈদগড় রেঞ্জ কর্মকর্তা মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ঈদগড় সদর বিটের বৌদ্ধপাড়া এবং তুলাতুলী বিটের ছকিরাকাটা এলাকায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে বনাঞ্চল থেকে লোকালয়ে চলে আসা দুটি লাল মায়া হরিণ উদ্ধার করি।পরবর্তীতে বিভাগীয় বনকর্মকর্তার নির্দেশে উদ্ধারকৃত লাল রঙের মায়া হরিণ দুটিকে ডুলহাজারা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সাফারি পার্কে হস্তান্তর করা হয়েছে।

এব্যাপারে কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মোঃ আনোয়ার হোসেন সরকার বলেন, বন্যপ্রাণী রক্ষায় বনবিভাগ সজাগ ও সতর্ক রয়েছেন। মায়া হরিণ শাবক লোকালয়ে চলে আসার খবর পেয়ে সাথে সাথে তা উদ্ধার করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ প্রদান করি। পরবর্তীতে ঈদগড় রেঞ্জের সকল স্টাফগণের সহযোগিতায় মায়া হরিণ শাবক দুটি উদ্ধারপূর্বক প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ডুলহাজারা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সাফারি পার্কে হস্তান্তর করা হয়।

তিনি আরো বলেন, সাধারণত পথ ভুলে গিয়ে, পাচারকারীদের তাড়া খেয়ে অথবা খাবারের সন্ধানে মায়া হরিণ দুটি লোকালয়ে চলে আসে। বন্যপ্রাণী রক্ষায় আমাদের সকলকে এগিয়ে আসতে হবে। পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ এবং প্রাকৃতিক সুন্দর পরিবেশ বিরাজমান রাখতে বন্যহাতি ও বন্যপ্রাণী রক্ষায় স্বতঃস্ফূর্ত ভূমিকা পালন করতে হবে। সরকারি সম্পদ ও বনজ সম্পদ রক্ষার্থে এবং বন অপরাধ দমনে তথ্য দিয়ে সহযোগিতার আহ্বান জানান তিনি।

%d bloggers like this: