বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ০৯:০৯ অপরাহ্ন

ঈদুকে সামনে রেখে ঈদগড়-ঈদগাঁও-বাইশারী সড়কে অপহরণ ও ডাকাতি প্রতিরোধে পুলিশী টহল জোরদারের দাবী

ঈদুকে সামনে রেখে ঈদগড়-ঈদগাঁও-বাইশারী সড়কে অপহরণ ও ডাকাতি প্রতিরোধে পুলিশী টহল জোরদারের দাবী

ঈদুকে সামনে রেখে ঈদগড়-ঈদগাঁও-বাইশারী সড়কে অপহরণ ও ডাকাতি প্রতিরোধে পুলিশী টহল জোরদারের দাবী

ঈদুকে সামনে রেখে ঈদগড়-ঈদগাঁও-বাইশারী সড়কে
অপহরণ ও ডাকাতি প্রতিরোধে পুলিশী টহল জোরদারের দাবী

এম আবু হেনা সাগর, ঈদগাঁও :

আসন্ন কোরবানীর ঈদকে সামনে রেখে রামু উপজেলার ঈদগড়, সদর উপজেলার ঈদগাঁও ও নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার বাইশারী সড়কে অপহরণ ও ডাকাতি প্রতিরোধে পুলিশী টহল জোরদারের দাবী জানিয়েছেন তিন এলাকার লক্ষাধিক জনগণ।

জানা যায়, বর্তমানে ঈদগড়-ঈদগাঁও-বাইশারী সড়কের পানেরছড়া ঢালা ও হিমছড়ি ঢালায় ঈদগাঁও তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ ও ঈদগড় পুলিশ ক্যাম্পের পুলিশরা নিরাপত্তার দায়িত্বে টহল অব্যাহত রেখেছে। বিগত সময়ের প্রেক্ষাপট থেকে দেখা যায় উল্লেখিত স্থানগুলো ছাড়াও ঈদগড়-ঈদগাঁও সড়কের ধুমছাকাটা স্কুল সংলগ্ন ব্রীজ, ক্যাম্পেরচরের রাস্তার মাথা, গজালিয়া পাইন্যাগোলাগাছ তলা এলাকা, ঈদগড়-বাইশারী সড়কের ধুইল্যা ঝিরি, বেঙঢেবা রাস্তার মাথা, বাইশারী ফরেষ্ট অফিস সংলগ্ন ব্রীজসহ আরো বিভিন্ন এলাকায় ডাকাতি ও অপহরণ সংঘটিত হয়েছে। কোরবানের আর কয়েকটি দিন বাকী থাকলেও এলাকাবাসী যাতায়াতে বর্তমানে শংকিত হয়ে পড়েছেন। কখন না কখন পুলিশের অগোচরে উল্লেখিত এলাকাগুলোতে ডাকাতি ও অপহরণ সংঘটিত হয় তার কোন ঠিক ঠিকানা নেই।

উল্লেখ্য, বিগত কয়েক বছর ধরে এলাকাবাসী ডাকাত ও অপহরণ কারীর কবলে পড়ে সর্বস্ব হারাচ্ছে। সড়কের দু’টি পয়েন্টে নিয়মিত পুলিশ টহল থাকার পরও ইতিপূর্বে ডাকাত ও অপহরণকারীদের কবল থেকে রক্ষা না পাওয়ায় বর্তমানে এলাকাবাসী উপরোল্লেখিত পয়েন্টগুলোতে পুলিশী টহল জোরদারের জন্য জেলা পুলিশ সুপারসহ উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করছেন। ঈদগড়ের কয়েকজনের সাথে কথা হলে তারা- আসন্ন কোরবানীর ঈদ উপলক্ষ্যে ডাকাত ও অপহরণকারীরা যে কোন মুহুর্তে ডাকাতি, অপহরণ সংঘটিত করতে পারে। তাই পুলিশ প্রশাসনকে আরো বেশি টহল জোরদার করে এলাকাবাসীর জানমাল রক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার আহবান জানান। ঈদগড়ে দায়িত্বরত রামু থানার এক এএসআইর মতে, জনগণের জানমাল রক্ষার্থে ঈদগড়-ঈদগাঁও-বাইশারী সড়কে পুলিশী টহল জোরদারের পাশাপাশি যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

https://www.facebook.com/coxviewnews

Design BY Hostitbd.Com