Home / প্রচ্ছদ / এইচ.এস.সি-আলীম পরীক্ষার ফল প্রকাশ : এইচএসসিতে পাশের হার ৬৪.৮০% জিপিএ ৫-৭৬ জন : আলিমে পাশের হার ৯০.৮৯ জিপিএ ৫-১৭ জন

এইচ.এস.সি-আলীম পরীক্ষার ফল প্রকাশ : এইচএসসিতে পাশের হার ৬৪.৮০% জিপিএ ৫-৭৬ জন : আলিমে পাশের হার ৯০.৮৯ জিপিএ ৫-১৭ জন

Resultএম.বেদারুল আলম

এইচএসসি ও সমমানের ফল প্রকাশিত হয়েছে। ৯ আগস্ট প্রকাশিত ফলাফলে জেলার কলেজসমূহে ফল বিপর্যয় হয়েছে। কক্সবাজারের গত ৭ বছরের ফলাফলের চেয়ে এ বছর এইচএসসি’তে পাশের হার এবং জিপিএ-৫ কমেছে। ফলাফলে হতবাক শিক্ষার্থী, শিক্ষক এবং অভিভাবকরা। এ বছর জেলার ২১টি কলেজ থেকে ৭৮৯৭ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ৫১১৬ জন। পাশের হার ৬৪.৮০ শতাংশ জিপিএ-৫ পেয়েছে মাত্র ৭৬ জন। গত বছর জেলায় পাশের হার ছিল ৭২.০৫ শতাংশ যা এ বছরের চেয়ে ৭.০২ শতাংশ বেশি। জেলায় জিপিএ-৫ প্রাপ্ত মেধাবীদের মধ্যে ছেলে ৪৬ জন এবং মেয়ে ৩০ জন। জেলায় জিপিএ-৫ এবং পাশের হারে আবারো সেরা হয়েছে কক্সবাজার সরকারি কলেজ। এ কলেজ থেকে ৮০৫ জনে পাশ করেছে ৭৪৭ জন। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৭১ জন। পুরো জেলার ৭৬ জন জিপিএ-৫ এর মধ্যে এ কলেজ থেকেই ৭১ জন জিপিএ-৫ পাওয়ায় গৌরব অর্জন করেছে। পাশের হার ৯২.৭৯ শতাংশ।

এ বছর জেলায় বিজ্ঞানে ৭৫০ জনে ৫৭১ জন পাশ করেছে। পাশের হার ৭৬.৩৪ শতাংশ। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৬৮ জন।

মানবিকে ৩৮৪৮ জনে ২২০১ জন পাশ করেছে। পাশের হার ৫৭.২০ শতাংশ। জিপিএ-৫ পেয়েছে ২ জন। ব্যবসায় শিক্ষা শাখায় ২৯৯৯ জনে পাশ করেছে ২৩৪৪ জন। পাশের হার ৭১.১৫ শতাংশ। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৭ জন।

অপরদিকে আলিম পরীক্ষায় জেলায় ১৫৯৩ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ১৪৪৮ জন পাশ করেছে। জিপিএ-৫ পেয়েছে মাত্র ১৭ জন। জেলায় আলিমে পাশের হার ৯০.৮৯ শতাংশ।

২১টি কলেজের পূর্ণাঙ্গ ফলাফল

কক্সবাজার সরকারি মহিলা কলেজে বিজ্ঞানে ১০৭ জনে ৭৫, মানবিকে ৩৪৬ জনে ২১৮ জন ব্যবসায় শিক্ষায় ২৪৫ জনে ২১৭ জন পাশ করেছে।

কক্সবাজার হার্ভার্ড কলেজে যথাক্রমে ২৩ জনে ১৪ জন, ৪৭ জনে ৩২ জন, ৬৫ জনে ৫০ জন পাশ করেছে।

কক্সবাজার সিটি কলেজে বিজ্ঞানে ৬০ জনে ৪৫ জন, মানবিকে ৩৪২ জনে ১৯২ জন, বাণিজ্যে ৩২৩ জনে ২৪৯ জন পাশ করেছে।

চকরিয়া সিটি কলেজে মানবিকে ৬৭ জনে ২৫ জন, বাণিজ্যে ১৩ জনে ৭ জন পাশ করেছে।

বদরখালী কলেজে বিজ্ঞানে ২ জনে কেউ পাশ করেনি, মানবিকে ১৭৩ জনে ৭৫ জন, বাণিজ্যে ৮৯ জনে ৪৮ জন পাশ করেছে।

চকরিয়া মহিলা কলেজে ৩৫ জনে ২১ জন, ২৩৬ জনে ১২৫ জন, ২৪৬ জনে ১৯৯ জন পাশ করেছে।

চকরিয়া কমার্স কলেজে ৭৭ জনে ৫৫ জন পাশ করেছে।

মহেশখালী কলেজে ১ জন জিপিএ-৫ সহ বিজ্ঞানে ৩৯ জনে ৩৮ জন, মানবিকে ২৯৬ জনে ২০৬ জন, বাণিজ্যে ১২৪ জনে ৯৪ জন পাশ করেছে।

হোয়ানক কলেজে মানবিকে ৩৪ জনে ২৪ জন, বাণিজ্যে ২৪ জনে ১৪ জন পাশ করেছে।

বঙ্গবন্ধু মহিলা কলেজে বিজ্ঞানে ৮ জনে ৮ জন, মানবিকে ৭৯ জনে ৫২ জন, বাণিজ্যে ৩৫ জনে ২৪ জন পাশ করেছে।

কুতুবদিয়া কলেজে ১৮ জনে ৬ জন, ২৩৬ জনে ১৪৫ জন, ১১২ জনে ৯১ জন পাশ করেছে।

ঈদগাঁও ফরিদ আহমদ কলেজে ২৩ জনে ১৫ জন, ২০১ জনে ১০৩ জন, ২০৫ জনে ১৫২ জন পাশ করেছে।

বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মহিলা কলেজে ২ জনে ১ জন, ২৩৯ জনে ১৪২ জন, ৯৫ জনে ৮১ জন পাশ করেছে।

কক্সবাজার কমার্স কলেজে ১ জন জিপিএ-৫ সহ ১৭২ জনে ১২৮ জন পাশ করেছে।

রামু কলেজে বিজ্ঞানে ৯ জনে ২ জন, মানবিকে ২০৯ জনে ১০১ জন, বাণিজ্যে ২৪০ জনে ১৩৩ জন পাশ করেছে।

পেকুয়া শহীদ জিয়াউর রহমান উপক‚লীয় কলেজে বিজ্ঞানে ১৭ জনে ৯ জন, মানবিকে ১৮৯ জনে ১২৭ জন, বাণিজ্যে ১১৬ জনে ৯৩ জন পাশ করেছে।

টেকনাফ কলেজে মানবিকে ১০৯ জনে ৬৩ জন, বাণিজ্যে ৪৯ জনে ১৫ জন পাশ করেছে।

চকরিয়া কলেজে বিজ্ঞানে ৩৮ জনে ২৪ জন, মানবিকে ৩৫৪ জনে ১৪১ জন, বাণিজ্যে ৩৪৫ জনে ১৩৯ জন পাশ করেছে।

ডুলাহাজারা কলেজে বিজ্ঞানে ৭৬ জনে ৬০ জন, মানবিকে ২৩৪ জনে ১২৮ জন, বাণিজ্যে ২৪৯ জনে ১৭১ জন পাশ করেছে।

উখিয়া ডিগ্রি কলেজে বিজ্ঞানে ৯ জনে কেউ পাশ করেনি, মানবিকে ২৩৭ জনে ১০২ জন, বাণিজ্যে ১৭০ জনে ৮৯ জন পাশ করেছে।

আলিম পরীক্ষার পূর্ণাঙ্গ ফলাফল

সদর

ইসলামীয়া মহিলা কামিল মাদ্রাসায় ৬ জন জিপিএ-৫ সহ ১৬০ জনে ১৪২ জন, ঈদগাঁও আলমাছিয়া ফাজিল মাদ্রাসায় ১ জন জিপিএ-৫ সহ ১১১ জনে ৯২ জন, কক্সবাজার আদর্শ কামিল মাদ্রাসায় ১০০ জনে ৮৬ জন, হাশেমিয়া কামিল মাদ্রাসায় ৭৮ জনে ৬৩ জন। ভারুয়াখালী দারুল উলুম আলিমে ৩৯ জনে ৩৬ জন, তেতৈয়া তাহফিমুল কোরান মাদ্রাসায় ২৭ জনে ১৭ জন, ছুরতিয়া সিনিয়র মাদ্রাসায় ৩৫ জনে ৩৩ জন পাশ করেছে।

রামু

রামুর একমাত্র প্রতিষ্ঠান মাসুমিয়া ইসলামীয়া আলিম মাদ্রাসায় ২১ জনে ১৪ জন পাশ করেছে।

চকরিয়া

আনোয়ারুল উলুম ফাজিল মাদ্রাসায় ৩ জন জিপিএ-৫ সহ ১৫৮ জনে ১৫৮ জন পাশ করেছে। বদরখালী এমএস ফাজিল মাদ্রাসায় ৯১ জনে ৯০ জন, পঁহরচাদা ফাজিল মাদ্রাসায় ৩ জন জিপিএ-৫ সহ ৩৬ জনে ৩৫ জন। আমজাদিয়া রফিকুল উলুম ফাজিল মাদ্রাসায় ১৩৮ জনে ১৩৪ জন, খুটাখালী তমিজিয়া মাদ্রাসায় ৩ জন জিপিএ-৫ সহ ৮০ জনে ৭৬ জন, আরবিয়া মারুফিয়া আলিম মাদ্রাসায় ৬৪ জনে ৬৪ জন পাশ করেছে।

পেকুয়া

রাজাখালী বি.ইউ ইসলামীয়া ফাজিল মাদ্রাসায় ৪১ জনে ৪০ জন, মৌলভীবাজার ফারুকীয়া মাদ্রাসায় ২৪ জনে ২৪ জন, ফাসিয়াখালী ইসলামীয়া ফাজিল মাদ্রাসায় ৩৩ জনে ৩৩ জন, মগনামা শাহ রশিদিয়া আলিম মাদ্রাসায় ৩৪ জনে ৩৪ জন, উজানটিয়া এ.এস আলিম মাদ্রাসায় ১৭ জনে ১৭ জন, আনোয়ারুল উলুম আলিম মাদ্রাসায় ১ জন জিপিএ-৫ সহ ৫২ জনে ৫২ জন পাশ করেছে।

কুতুবদিয়া

ধুরুং সামাদিয়া আলিম মাদ্রাসায় ২৮ জনে ২৬ জন, বড়ঘোপ ইসলামীয়া ফাজিল মাদ্রাসায় ৫১ জনে ৪৯ জন পাশ করেছে।

মহেশখালী

পুটিবিলা ইসলামীয়া ফাজিল মাদ্রাসায় ৪৫ জনে ৪৩ জন, মাতারবাড়ি মজিদিয়া মাদ্রাসায় ১৪ জনে ১১ জন, কালামারছড়া মঈনুল ইসলাম মাদ্রাসায় ১৬ জনে ১০ জন, মোহাম্মদীয়া ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসায় ৯ জন, শাপলাপুর ইসলামীয়া আলিমে ২২ জনে ১৭ জন পাশ করেছে।

টেকনাফ

হ্নীলা জমিরিয়া আলিম মাদ্রাসায় ১৩ জনে ৯ জন, শাহ মজিদিয়া আলিমে ৩৬ জনে ৩৪ জন, রঙ্গীখালী ফাজিল মাদ্রাসায় ২১ জন পাশ করেছে।

উল্লেখ্য, আলিম পরীক্ষায় কুতুবদিয়া, মহেশখালী, টেকনাফ, রামুসহ ৪টি উপজেলায় কোন প্রতিষ্ঠান থেকে জিপিএ-৫ পায়নি।

Leave a Reply

%d bloggers like this: