মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৩:৫৪ পূর্বাহ্ন

ওয়ার্ল্ড ভিশন চৌফলদন্ডী এডিপির ২৬ বছর ধরে চলে আসা উন্নয়ন উদ্যোগের সমাপ্তি

ওয়ার্ল্ড ভিশন চৌফলদন্ডী এডিপির ২৬ বছর ধরে চলে আসা উন্নয়ন উদ্যোগের সমাপ্তি

ওয়ার্ল্ড ভিশন চৌফলদন্ডী এডিপির ২৬ বছর ধরে চলে আসা উন্নয়ন উদ্যোগের সমাপ্তি

ওয়ার্ল্ড ভিশন চৌফলদন্ডী এডিপির ২৬ বছর ধরে চলে আসা উন্নয়ন উদ্যোগের সমাপ্তি

সু-দীর্ঘ ২৬ বছর ধরে চলে আসা উন্নয়ন উদ্যোগের সফল পরিসমাপ্তি ঘটেছে। কক্সবাজার সদর উপজেলার সাতটি ইউনিয়নের পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠির উন্নয়ন কার্যক্রমে ওয়ার্ল্ডভিশন বাংলাদেশ আর নিরন্তর ছুটে চলবেনা। চৌফলদন্ডী এডিপি তাদের কার্যক্রম অনুষ্ঠানিকভাবে গুটিয়ে নিয়েছে।

এ উপলক্ষে ধন্যবাদ জ্ঞাপন ও সমাপনী অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেছেন, ওয়ার্ল্ডভিশন বাংলাদেশ ১৯৮৯ সালে কমিউনিটি উন্নয়ন প্রকল্পের মাধ্যমে চৌফলদন্ডী এলাকায় কাজ শুরু করে। প্রকল্প শুরু করার প্রাক্কালেই সংস্থাটি দক্ষহাতে ১৯৯১ সালের প্রলয়ংকরী ঘূর্ণিঝড় পরবর্তীতে ত্রাণ ও পুর্নবাসন কার্যক্রমের মাধ্যমে জনগণের জীবনমান উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে। বক্তারা আরো বলেন, ১৯৯১ সালে সিডিপি কার্যক্রমের সমাপ্তি হলে একই বছর চৌফলদন্ডী এলাকা উন্নয়ন কর্মসূচী কক্সবাজার সদর উপজেলার সাতটি ইউনিয়নের পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠির উন্নয়নে কার্যক্রম শুরু করে। দীর্ঘ এই পথচলায় উন্নয়ন সংস্থাটি এলাকার জনগণের জীবন যাত্রায় শিক্ষা, স্বাস্থ্য, জীবীকায়নের নিরাপত্তা, দুর্যোগ ঝুঁকি নিরসন এবং স্পন্সরশীপ ম্যানেজমেন্ট এর মাধ্যমে ইতিবাচক পরিবর্তন আনতে পেরেছে। দীর্ঘ দুই যুগেরও বেশী সময়ের পথচলায় ওয়ার্ল্ডভিশন বাংলাদেশ চৌফলদন্ডী এডিপি এলাকার জনগণের কাছাকাছি থেকে তাদের টেকসই উন্নয়নে সহযোগিতা করেছে। তারই ধারাবাহিকতায় স্থানীয় কিশোর কিশোরীদের স্বাস্থ্য চর্চা, মা ও শিশু স্বাস্থ্যের উন্নয়ন, শিশুদের পুষ্টি ও টীকা কার্যক্রমের ব্যাপকভাবে প্রচার প্রচারণা চালিয়েছে। এরই ফলাফল স্বরূপ কমিউনিটির জনগণ যেমন স্বাস্থ্য সম্পর্কে সচেতনতা লাভ করেছে তেমনি তাদের স্বাস্থ্যভাসেও এসেছে ইতিবাচক পরিবর্তন।

পাশাপাশি পানিবাহিত রোগের সংখ্যাও কমেছে উল্লেখযোগ্য হারে। ১৭ সেপ্টেম্বর সকালে ঈদগাঁও জাহানারা ইসলাম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংস্থার রিজিওনাল ফিল্ড ডিরেক্টর অঞ্জলি জে কস্তা। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) এস.এম শাহ হাবিবুর রহমান হাকিম। বিশেষ অতিথি ছিলেন কক্সবাজার সদর উপজেলা চেয়ারম্যান জি.এম রহিমুল্লাহ, ওয়ার্ল্ডভিশন বাংলাদেশের ন্যাশনাল ডিরেক্টর (ভারপ্রাপ্ত) উইলফ্রেড সিকুকুলা, ন্যাশনাল চীফ এ্যাডভাইজার স্টিফেন কে হালদার।

বক্তব্য রাখেন কক্সবাজার এডিপি ম্যানেজার বিভুদান বিশ্বাস, জালালাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আমান উল্লাহ ফরাজী, শিক্ষাবিদ গিয়াস উদ্দিন, ডাঃ আব্দুল কুদ্দুস মান্নান, শিশু ফোরামের প্রতিনিধি অতশি দে, মোঃ শ্যাফি, সিবিও ফোরাম প্রতিনিধি মকসুদ আহমেদসহ ওয়ার্ল্ডভিশনের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাগণ।

স্থানীয় এলাকাবাসী ও ওয়ার্ল্ডভিশন বাংলাদেশ কক্সবাজার এডিপি আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে স্পন্সরশীপের ছাত্র-ছাত্রী ছাড়াও প্রায় সহস্রাধিক মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

পরে কক্সবাজারের শিল্পীদের পরিবেশনায় মনোমুগ্ধকর সংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়।

– প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

https://www.facebook.com/coxview

Design BY Hostitbd.Com