Home / প্রচ্ছদ / কক্সবাজার-টেকনাফ সড়কের জায়গা বেদখল হয়ে যাচ্ছে

কক্সবাজার-টেকনাফ সড়কের জায়গা বেদখল হয়ে যাচ্ছে

Dakolহুমায়ুন কবির জুশান, উখিয়া :

পর্যটন নগরি কক্সবাজার-টেকনাফ সড়কের জায়গা ক্রমাগত বেদখল হয়ে যাচ্ছে। সড়কের আশ-পাশের ফুটপাত, রাস্তা ঘেষে তরিতরকারীর বাজার, মাছকারিয়া খালের অধিকাংশ জায়গা ও প্রবেশমুখ সহ পাতাবাড়ি সংলগ্ন খালটি এবং পালংখালী ষ্টেশন সংলগ্ন খাল ভরাট করে স্থাপনা নির্মাণের ফলে ষ্টেশন এলাকার প্রধান সড়কে যানজট লেগেই থাকে। এতে পথচারী ও যাত্রীদের ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করতে হচ্ছে।

উপজেলা প্রশাসনের উচ্ছেদ অভিযানে ভাটা পড়ায় এক শ্রেণীর প্রভাবশালী রাজনৈতিক ছত্রছায়ায় থেকে এসব খাল দখল করে রাতারাতি দালান নির্মাণের ফলে পয়নিস্কাশন বন্ধ হয়ে যায়।

বৃষ্টি হলেই উখিয়া সদরের ঘিলাতলী পাড়া বাজার এলাকা এবং সড়কের প্রধান প্রধান জায়গাগুলো জলমগ্ন হয়ে জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করে।

স্থানীয়রা জানান, উপজেলা প্রশাসনের বাজার উন্নয়ন ও জলাবদ্ধতা দুরীকরণে সুষ্ঠু নীতিমালাও কোন পরিকল্পনা গ্রহণ না করায় বছরের পর বছর প্রভাবশালীরা নিজেদের ইচ্ছে মতো খালগুলো দখলে নিচ্ছে।

স্থানীয় যুব সংগঠন কেন্দ্রীয় ফেমাস সংসদের সভাপতি নুরুল আলম জানান, ষ্টেশনের খোলা ও নিচু জায়গা এবং খাল ভরাট করে প্রকাশ্যে দখল এগিয়ে চলছে। এ প্রক্রিয়া বেশ কয়েক বছর ধরেই চলমান রয়েছে। পথচারীদের যান চলাচলের সড়ক ছাড়া ষ্টেশন চত্বরের আশপাশে হেঁটে চলার কোনো সুযোগ নেই। এসব কারণে ষ্টেশন সত্বরে প্রায়ই যানজট লেগে থাকে।

উখিয়া ডিগ্রী কলেজের কর্মচারী জিয়াউল হক জানান, অটোরিকশা, রিকশা, টমটম নিয়ে বাসযাত্রীদের ষ্টেশনের মূল সড়কে এসে ওঠানামা করতে হয়। ষ্টেশনের আশপাশে পার্কিং করার মতো জায়গা খালি নেই। যাত্রীদের ব্যক্তিগত পরিবহন পার্কিং করার জায়গাও এখানে নেই।

রাজাপালং ডিগ্রী মাদ্রাসার সহকারী অধ্যাপক মুহিব উল্লাহ জানান, ষ্টেশনের আশপাশ ও মূল সড়ক ছাড়া চলাচলের কোনো সুযোগ নেই। খালি জায়গাগুলোতে স্থায়ী এবং অস্থায়ী স্থাপনা নির্মাণ করা হয়েছে।

থাইংখালী উচচ বিদ্যালয়ের শিক্ষক কমরুদ্দিন মুকুল জানান, কক্সবাজারে যাওয়া একজন যাত্রীর প্রাইভেট কার পার্কিংয়ের জায়গাও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ নিশ্চিত করতে পারছে না।

থাইংখালী এলাকার মোক্তার আহমদ জানান,

থাইংখালী ষ্টেশন সংলগ্ন খালটি স্থানীয় প্রভাবশালীরা দখল করে রেখেছে দীর্ঘদিন থেকে।

দারোগা বাজারের বাসিন্দা রুপন দেওয়ানজী জানান, বাজার এলাকার ষ্টেশনের কোনো জায়গায় এখন আর খালি নেই। ষ্টেশনের জায়গা দখল ও কৃত্রিম যানজট বিষয়ে জীপ মাইক্রো সমিতির সাধারণ সম্পাদক তোফাইল আহমদ বলেন, কক্সবাজার-টেকনাফ সড়কের উখিয়া ষ্টেশন একটি জনগুরুত্বপর্ণ স্থান। এখানে জীপ-মাইক্রো, কক্সলাইন-সী লাইনসহ অসংখ্য গাড়ি ষ্টেশন থেকে যাত্রী ওঠানামা করলেও এখানে এসব গাড়ির জন্য কোনো নির্ধারিত গাড়ি পার্কিং ব্যবস্থা নেই।

Leave a Reply

%d bloggers like this: