বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ০৯:১৬ অপরাহ্ন

কক্সবাজার-টেকনাফ সড়ক অচল করে দেওয়ার হুমকি : উখিয়ার সিএনজি শ্রমিকের সাড়ে ৩ লক্ষ টাকা উদ্ধারে স্মারকলিপি

Ukhiya Pic 02-08-2015 (1)নিজস্ব প্রতিনিধি, উখিয়া:

কক্সবাজার জেলার উখিয়া উপজেলার তথাকথিত সিএনজি মাহিন্দ্রা সমবায় সমিতির সভাপতি কর্তৃক সিএনজি শ্রমিকের সাড়ে ৩ লক্ষ টাকাসহ তাদের আসবাবপত্র আত্মসাত্ করার ঘটনা নিয়ে শ্রমিকদের মাঝে বিরাজ করছে চরম উত্তেজনা। ওই টাকা উদ্ধারে ১৫ দিনের আল্টিমেটাম দিয়ে শ্রমিক নেতৃবৃন্দ রোববার বেলা ১১টায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট স্মারকলিপি প্রদান করেছে। আত্মসাত্ করা টাকা ও আসবাবপত্র উদ্ধারে ব্যর্থ হলে বৃহত্তর শ্রমিক সংগঠনের সদস্যরা সড়কে বেরিকেট দিয়ে কক্সবাজার-টেকনাফ সড়ক অচল করে দেওয়ার কর্মসূচি ঘোষণা করেছে।

উখিয়া উপজেলা নবগঠিত অটোরিক্সা, সিএনজি, টেম্পো, শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি সম্পাদক স্বাক্ষরিত প্রদত্ত স্মারকলিপি সূত্রে জানা যায়, অস্তিত্বহীন উপজেলা মাহিন্দ্রা সিএনজি সমিতির তথাকথিত সভাপতি আনোয়ার ছিদ্দিক মামুন চৌধুরী প্রভাব বিস্তার করে সমিতির ৪৪৮ জন নিয়মিত সদস্যের সঞ্চয়ী আমানতের ৩ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা সহ তাদের আসবাবপত্র আত্মসাত্ করেছে। সমিতির হতদরিদ্র সদস্যরা তাদের প্রাপ্য টাকা ফেরত চাইলে তাদেরকে নানাভাবে হুমকি ধমকি প্রদর্শন করা হচ্ছে। যার ফলে ওই সমিতির কার্যকরী পরিষদের ৮ জন কর্মকর্তাসহ ৩ শতাধিক সদস্য পদত্যাগ করতে বাধ্য হয়েছে। এমতাবস্থায়, শ্রমিকেরা তাদের বৃহত্তর স্বার্থে ও সদস্যদের ঐক্যমতের ভিত্তিতে উখিয়া উপজেলা অটোরিক্সা সিএনজি ও টেম্পু পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন নামের একটি সংগঠন চালু করে বিগত ২ মাস যাবত কার্যক্রম চালিয়ে আসছে।

নবগঠিত শ্রমিক সংগঠনের সভাপতি মোক্তার আহমদ চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক মাসুদ আমিন শাকিল জানান, সিএনজি শ্রমিকের মাথার ঘাম পায়ে ফেলে অর্জিত সঞ্চয়ী আমানতের টাকা ফেরত পাওয়ার জন্য তারা অস্থির হয়ে পড়েছে। স্থানীয়ভাবে আইন-শৃঙ্খলা সমুন্নত রাখতে ও স্বাভাবিক অবস্থা বিরাজমান রেখে শ্রমিকের প্রাপ্য টাকা উদ্ধারের ব্যাপারে প্রশাসনের দ্বারস্থ হতে হয়েছে। ২ আগস্ট রোববার বেলা ১১টায় নবগঠিত শ্রমিক সংগঠন উখিয়া উপজেলা অটোরিক্সা সিএনজি ও টেম্পু পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ ও সদস্যরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট স্মারকলিপি প্রদান করেছে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সভাপতি মোক্তার আহমদ চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মাসুদ আমিন শাকিল, সহ-সভাপতি ছৈয়দ হোছন, যুগ্ম সম্পাদক নুরুল আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল কাইয়ুম, দপ্তর সম্পাদক আমির হোছন ফাতে সহ শতাধিক সদস্য। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হিল্লোল বিশ্বাস জানান, বিষয়টি সমাধানের জন্য উভয়পক্ষকে তলব করে নোটিশ প্রদান করা হচ্ছে। এ ব্যাপারে জানতে চাওয়া হলে অভিযুক্ত আনোয়ার ছিদ্দিক মামুন চৌধুরী জানান, তার সমিতি থেকে পদত্যাগ করা সদস্যদের প্রাপ্য টাকা ফেরত্ প্রদানের জন্য ৮ জুলাই থেকে কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে।

https://www.facebook.com/coxviewnews

Design BY Hostitbd.Com