Home / প্রচ্ছদ / কালারমারছড়া আদর্শ দাখিল মাদ্রাসার বই উৎসব সম্পন্ন

কালারমারছড়া আদর্শ দাখিল মাদ্রাসার বই উৎসব সম্পন্ন

Book - Kazal 05.01.16 (news & 2pic) f1 (1)শহীদুল ইসলাম কাজল; মহেশখালী :

মহেশখালী উপজেলার কালারমারছড়া আদর্শ দাখিল মাদ্রাসার বই বিতরণ উৎসব ১ জানুয়ারী সরকার ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে মাদ্রাসার সুপার মাও. ইব্রাহিমের কোরান তেলাওয়াতের মাধ্যমে শুরু হয়। বিশিষ্ট আলেমে দ্বীন মাদ্রাসার শিক্ষানুরাগী সদস্য মাও: নুরুল ইসলামের সভাপতিত্বে বই বিতরণ অনুষ্টানে প্রধান অতিথি ছিলেন কালারমারছড়া ইউনিয়ন পরিষদের ৭নং ওয়ার্ড় মেম্বার ও যুবলীগ নেতা নাজেম উদ্দিন নাজু। বিশেষ অতিথি উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন পরিচালনা কমিটির সদস্য মোহাম্মদ নজির আহমদ; এহেছান আলী ও ছাত্রছাত্রীদের সচেতন অভিভাবকবৃন্দ। উপস্থিত নেতৃবৃন্দ মাদ্রাসার ছাত্রছাত্রীদের হাতে বই তুলে দিয়ে উৎসবের উদ্বোধন ঘোষণা করেন। মাদ্রসার সুপার মাও: মুহাম্মদ ইব্রাহিম বক্তব্যের শুরুতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং যাদের পরিশ্রম ও ত্যাগের বিনিময়ে মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠিত হয়েছে সেই সব ব্যক্তিদের মাগফেরাত-দীর্ঘায়ু কামনা করেন। সাথে সাথে শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন বর্তমান সফল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শিক্ষা ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের কথা। তিনি উপস্থিত অতিথি বৃন্দ, অভিভাবক ও শিক্ষার্থীদের উেেদ্দশ্যে বলেন- মাননীয় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার আন্তরিক প্রচেষ্টার ফলে আজকে বাংলাদেশের শিক্ষা ক্ষেত্রে যে অভুতপূর্ব উন্নয়ন সাধিত হচ্ছে এটি শুধু বাংলাদেশ নয় বিশ্বের জন্যও একটি দৃষ্টান্ত। বছরের প্রথম দিনেই নতুন বই শিক্ষার্থীদের হাতে পৌছে দেওয়ার ক্ষেত্রে যারা অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। এছাড়া উপস্থিত নেতৃবৃন্দের দৃষ্টি আকর্ষণ করে (সুপার মাও.ইব্রাহিম) বলেন মাদ্রাসায় দীর্ঘদিন থেকে ভবন ও আসবাবপত্র সংকট, ফলে ৭৫০ জন শিক্ষার্থী নিয়ে পাঠদান কার্যক্রম পরিচালনায় সাময়িক অসুবিধা হচ্ছে। এর পরও শিক্ষকদের আন্তরিক প্রচেষ্টায় বিগত সময়ে বোর্ড পরীক্ষায় ভাল ফলাফলের জন্য উপজেলার শ্রেষ্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন। প্রধান অতিথি বক্তব্যে নাজেম উদ্দিন নাজু উপস্থিত নেতৃবৃন্দ. শিক্ষক মন্ডলী ও সচেতন অভিভাবকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন- প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের প্রধান হিসেবে আছেন বলেই বছরের প্রথম দিনেই শিক্ষার্থীদের হাতে বই পৌছে দেওয়া সম্ভব হয়েছে। কয়েক বছর পূর্বে টাকার অভাবে বই কিনতে না পেরে অনেক সম্ভাবনাময়ী শিক্ষার্থীর শিক্ষা জীবন অকালে বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। এখন সে সমস্যা আর নেই। অভিভাবকদের উদ্দেশ্যে প্রধান অতিথি আরো বলেন-আপনারা যারা অভিভাবক আছেন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্রছাত্রীদের পাঠানোর দায়িত্ব আপনাদের। শিক্ষার জন্য যা কিছু করা দরকার এর সবটাই বর্তমান সরকার আপনাদের ছেলে মেয়েদের জন্য করে যাচ্ছেন। মাননীয় প্রধান মন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা মৌলিক অধিকার শিক্ষা গরীব দুঃখী মানুষের দূরগোড়ায় পৌছে দিয়ে প্রকৃত শিক্ষায় আলোকিত বাঙালী জাতি ঘটনের জন্য নিরলশ ভাবে পরিশ্রম করে আজ বছরের শুরুতে শিক্ষার্থীদের হাতে বই তুলে দিয়ে একের পর এক যুগপযোগী দৃষ্টান্ত স্থাপন করে যাচ্ছেন। তিনি(নাজেম উদ্দিন) শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন- বিশ্বে বিরল ইতিহাস সমৃদ্ব আমাদের স্বাধীনতার সংগ্রাম। স্বাধীনতা অর্জনের ৪৫ বছর আমরা অতিক্রম করেছি। এরই মধ্যে বেশ কয়েকবার স্বাধীনতার সঠিক ইতিহাস মুচেফেলা হয়েছিল, তরুন প্রজন্মের মধ্যে বিভান্তি সৃষ্টির চেষ্টা হয়েছিল। তাই পাঠ্যপুস্তক নির্ভর শিক্ষার পাশাপাশি স্বাধীনতা সংগ্রামের সঠিক ইতিহাস শিক্ষা দেওয়ার জন্য শিক্ষকদের প্রতি অনুরোধ জানান। পরে উপস্থিত নেতৃবৃন্দ শিক্ষকমন্ডলী ও অভিভাবক বৃন্দ মাদ্রাসার ভবন পরিদর্শন করে মাদ্রাসার সমস্যা সমাধানে স্থানীয় সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক এমপি’র সহযোগিতা কামনা করেন।

Leave a Reply