Home / প্রচ্ছদ / কুতুবদিয়া কৃষিক গ্রুপের মাঝে পাওয়ার টিলার বিতরণ

কুতুবদিয়া কৃষিক গ্রুপের মাঝে পাওয়ার টিলার বিতরণ

Kishi Upakaron Kishi Upakaron bitoron Rasel 22-12-15 (news & 1pic) f1এম রাসেল খাঁন জয়; কুতুবদিয়া :

বাংলাদেশ কৃষি মন্ত্রণালয়ের অধীনে সমন্বয় কৃষি উন্নয়নের মাধ্যমে পুষ্টি ও খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণ প্রকল্পের আওতায় উপজেলা কৃষি অফিসের উদ্যোগে উপজেলার ৬ ইউনিয়নে গঠিত কৃষক গ্রুপের মাঝে ২৩ ডিসেম্বর দুপুরে কুতুবদিয়া উপজেলা অফির্সাস ক্লাব চত্তরে ৬টি পাওয়ার টিলার (ট্রাকটর) বিতরণ করা হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সালেহিন তানভীর গাজী এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত পাওয়ার টিলার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কুতুবদিয়া উপজেলা আ’লীগের সভাপতি আওরঙ্গজেব মাতবর। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি জেলা আ’লীগ নেতা শফিউল আলম, সমবায় অফিসার মোঃ কামাল পাশা, পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা নুরুল আলম নিয়াজী, কুতুবদিয়া উপজেলা কৃষকলীগের সভাপতি মিজবাহ উদ্দিন, তরুন আ’লীগনেতা শেখ শহিদুল ইসলাম লালা, কুতুবদিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহবায়ক সেলিম উদ্দিন লিটন, সাবেক জেলা ছাত্রলীগের সদস্য এইচ.এম.সাজ্জাদ, বিডিপিসি কুতুবদিয়া শাখা ব্যবস্থাপক আহাদ আলী মৃধা (জুয়েল), উপ-কৃষি কর্মকর্তা মো: গিয়াস উদ্দিন, নূরে আলম মনিরসহ অন্যান্য দপ্তরের কর্মকর্তা কর্মচারী এবং কৃষক গ্রুপের সদস্যরা।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে প্রকাশ, কুতুবদিয়া উপজেলার ৬ ইউনিয়নে গত বছর ৪০ জন করে সদস্য নিয়ে ৬টি কৃষক গ্রুপ গঠন করা হয়। প্রতিটি গ্রুপে ৪০জন সদস্যর মধ্যে ৩০% নারী সদস্য রয়েছে। এসব কৃষক গ্রুপের সদস্যরা ব্যাংক একাউন্টের মাধ্যমে তাদের মাসিক সঞ্চয় জমা করেন প্রায় ১ বছর ধরে। এসব কৃষকদের স্বাবলম্বী ও পুষ্টিকর এর আওতায় আনার জন্য কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর লীড এজেন্সী ও অঙ্গ বাংলাদেশ ফলিত পুষ্টি গবেষণা ও প্রশিক্ষণ ইনিস্টিটিউট (বারটান) কুতুবদিয়া উপজেলার প্রতিটি কৃষক গ্রুপের মাঝে মাত্র ১৩ হাজার টাকা মূল্যে একটি পাওয়ার টিলার (ট্রাকটর) এএলপি মেশিন, পাওয়ার থ্রেসার, পাওয়ার স্প্রেয়ার, ফুট পাম্প, হ্যাড স্প্রেয়ারসহ কৃষি উপকরণ যন্ত্রপাতি বিতরণ করেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপজেলা আ’লীগের সভাপতি আওরঙ্গজেব মাতবর বলেন,মাছে ভাতে বাঙ্গালী পরিচয় বহনকারী কৃষকরা আজ বাংলাদেশকে স্বয়ং সম্পূর্ণ করে তুলেছে। খাদ্য ঘাটতি দূর করে শস্য উত্পাদন পূর্বক কৃষকরা দেশের চাহিদা পূরণ করে বিদেশে রপ্তানী করে হাজার হাজার কোটি টাকা বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করে দেশকে মধ্য আয়ের দেশে পরিনত করে যাচ্ছে। আ’লীগ সরকার কৃষকদের মাঝে বিনা মূল্যে সার, কীটনাশক, কৃষি উপকরণ বিতরণ করে কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করায় কৃষকদের অবদানে আজ বাংলাদেশ খাদ্য শস্যে স্বয়ং সম্পূর্ণ দেশ হিসেবে বিশ্বের দরবারে পরিচিত করেছে। কৃষকদের অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে ১০ টাকা দিয়ে ব্যাংক একাউন্ট করে বর্তমান সরকার নজির সৃষ্টি করেছে।

%d bloggers like this: