শুক্রবার, ১৯ অগাস্ট ২০২২, ০৪:২৯ অপরাহ্ন

শিরোনাম
বিএনপির জন্য অপেক্ষা করবে নির্বাচন কমিশন লামায় গৃহবধূর মৃত্যু নিয়ে ধূম্রজাল লামায় বিদ্যুৎ যাচ্ছে অটোরিকশা-টমটমের পেটে লামায় ৬৯ লিটার চোলাই মদসহ ব্যবসায়ী আটক ১ ঈদগড়ের চালক শহিদুল হত্যাকান্ডে আটক আসামীদের জামিন না মঞ্জুর এবং পলাতক আসামীদের গ্রেফতারের দাবী জানিয়েছেন অসহায় পিতা শুভ জন্মাষ্টমী আজ সারা দেশে সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে রামুতে আ’লীগের সমাবেশ অনুষ্ঠিত দেশব্যাপী সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে ঈদগাঁওতে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ কক্সবাজার সৈকতে নিখোঁজ পর্যটকের মরদেহ উদ্ধার  বিশ্বের সবচেয়ে পাতলা ভাঁজযোগ্য ফোন দেখাল শাওমি ঘোষণার আগেই বাড়লো চিনির দাম

চকরিয়ার আলোচিত শিপু হত্যা মামলায় ১৯ জনকে আসামী রেখে চার্জশীট দাখিল

মুকুল কান্তি দাশ; চকরিয়া :

কক্সবাজারের চকরিয়ার আলোচিত হেলাল উদ্দিন শিপু হত্যা মামলার অভিযোগপত্র (চার্জশীট) দাখিল করেছে সিআইডি।এজাহারনামীয় ত্রিশজন ও অজ্ঞাতনামা আরো ১৫ জনসহ ৪৫ জনের বিরুদ্ধে মা ছকিনা বেগম বাদি হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন। এই মামলার তদন্ত শেষে এজাহারনামীয় ১৭জনকে ঘটনার সাথে জড়িত না থাকার প্রমাণ পাওয়ায় মামলা থেকে অব্যাহতি দিয়ে এবং অজ্ঞাতসহ ১৯জনকে আসামী দেখিয়ে আদালতে চার্জশীট দাখিল করা হয়।

জানা গেছে, ২০১৫ সালের ৩ নভেম্বর রাত পৌণে ২ টার দিকে জমির বিরোধ নিয়ে উপজেলার বদরখালী ইউনিয়নের কুতুবদিয়া পাড়ায় দু’পক্ষের সংঘর্ষ হয়।এ সময় বেশ ক’জন আহত হলেও মৃত আবু তাহেরের ছেলে হেলাল উদ্দিন শিপু মারা যায়। এ ঘটনায় ৬ নভেম্বর নিহতের মা ছকিনা বেগম বাদি হয়ে হত্যা, লুটপাট, অগ্নিসংযোগ, ভাংচুরসহ বিভিন্ন অভিযোগে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এতে ৩০ জনের নাম উল্লেখসহ আরো ১৫ জনকে অজ্ঞাত দেখিয়ে মোট ৪৫জনকে আসামী করা হয়।

আলোচিত শিপু হত্যা মামলাটি প্রথমে তদন্ত করেন চকরিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো.কামরুল আজম। বাদি পক্ষ তার তদন্তের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনায় মামলাটি সিআইডি’র কাছে হস্তান্তর করা হয়। সিআইডি’র ইন্সপেক্টর জাকের হোসেন মাহমুদ তদন্ত শুরু করলে বাদি পক্ষ তার বিরুদ্ধেও প্রশ্ন তুলেন। ফলে, সিআইডি’র সহকারী পুলিশ সুপার মো.অহিদুর রহমান (পিপিএম) এই মামলা ব্যাপকভাবে তদন্ত করে ১৭জনকে অব্যাহতি দিয়ে ১৯জনকে আসামী আদালতে চার্জশীট দাখিল করেন।

তদন্ত কর্মকর্তা চার্জশীটে দাবি করেন, সাক্ষ্য গ্রহণ, মাঠ পর্যায়ে তদন্ত ও পুঙ্কানুপুঙ্ক বিশ্লেষণ করে ঘটনার সাথে জড়িত থাকার প্রমাণ না পাওয়ায় এ.কে.এম ইকবাল বদরী, এম.হোসাইন আহমদ, নুরুল কাদের, ফজলুল কাদের, শাহাদাৎ হোসাইন, আক্তার হোসাইন, মো.ইউসুফ বদরী, মাহবুবউল আলমসহ ১৭জনকে মামলা অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়। এ চার্জশীট নিয়েও বাদি পক্ষ নাখোশ বলে নিহত শিপুর পরিবারের লোকজন জানায়।

অভিযোগ থেকে অব্যাহতি পাওয়া বদরখালী কৃষি ও উপনিবেশ সমবায় সমিতির সাধারণ সম্পাদক এ.কে.এম ইকবাল বদরী বলেন, ওই ঘটনার সাথে আমিসহ আমার আত্মীয়রা কোনভাবেই জড়িত না থাকলেও সমিতির নেতৃত্ব নিয়ে তৃতীয় একটি পক্ষ আমাদেরকে হত্যা মামলায় জড়িয়ে হয়রানির চেষ্টা করে।

https://www.facebook.com/coxview

Design BY Hostitbd.Com