Home / প্রচ্ছদ / চকরিয়ায় চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্রী ধর্ষণের শিকার

চকরিয়ায় চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্রী ধর্ষণের শিকার

shafiq - 01780099800, Cox'sBazar, Bangladesh.

শুক্রবার বেলা ১টা । জুমার নামাজের সময় । শ্রমিক পরিবারের মা কাজ করতে বাইরে গেছে । বাবা যায় নামাজ আদায় করতে মসজিদে। ঘরে একা ছিল চতুর্থ শ্রেণীর শিশু ছাত্রী। ঘরে অভিভাবকদের ক্উে নেই জেনে ঠিক ওই সময় প্রতিবেশী ৪ সন্তানের জনক বাবার বয়সি আবদুর রহমান প্রবেশ করে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে ওই ছাত্রীকে। এই সময় বাঁধা ও চিৎকার করলে শিশু ছাত্রীকে কামড়িয়ে জখম করে নরপশু তুলল রহমান। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে কক্সবাজারের চকরিয়ার উপকূলীয় ইউনিয়ন পূর্ব বড় ভেওলার মধ্যম চড়পাড়া গ্রামে। ভিকটিমকে পরিবারের পক্ষ থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ৮ আগস্ট শনিবার সকালে থানায় আনার পর ওই ছাত্রী ওসি প্রভাষ চন্দ্র ধরকে কান্না জড়িত কন্ঠে বিস্তারিত বললে ঘটনাটি জানাজানি হয়।

ধর্ষক আবদুর রহমান (৪০) একই গ্রামের মো: পেটানের ছেলে। সে ৪ সন্তানের জনক। জুমার সময় শিশু ছাত্রীকে ধর্ষণ ও কামড়িয়ে জখম করলে ভিকটিম চিৎকার দেয়। এসময় প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে নরপশু তুলল আবদুর রহমানকে পাকড়াও করলেও তার আত্মীয়-স্বজনরা হামলা করে ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এ ঘটনা ভিকটিমের বাবা পুলিশকে জানায়।

চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ প্রভাষ চন্দ্র ধর বলেন, ঘটনাটি অত্যন্ত ন্যাক্কারজনক। সামান্য মানবিক গুণ যাদের রয়েছে তারা এ রকম কাজ করতে পারে না। লিখিত এজাহার পাওয়ার পাশাপাশি মহিলা পুলিশ সদস্যের সহায়তায় ভিকটিমের কাছ থেকে বিস্তারিত ঘটনা শুনেছি। সাথে সাথেই থানার এসআই সুকান্ত চৌধুরীর নেতৃত্বে একদল পুলিশকে অভিযানে পাঠিয়েছি ধর্ষককে আটক করতে।

অন্যদিকে ভিকটিমকে ডাক্তারী পরীক্ষাসহ উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালস্থ ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে(ওসিসি) পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

%d bloggers like this: