Home / প্রচ্ছদ / সাম্প্রতিক... / নির্বাচন সংক্রান্ত / চকরিয়া পৌরসভা নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী নিয়ে ব্যাপক আলোচনা : আ.লীগের আলমগীর ও বিএনপি’র হায়দার একক প্রার্থী, সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় জাতীয় পাটি

চকরিয়া পৌরসভা নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী নিয়ে ব্যাপক আলোচনা : আ.লীগের আলমগীর ও বিএনপি’র হায়দার একক প্রার্থী, সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় জাতীয় পাটি

election  - Mukul 17.02.16 (news 3pic) f2 (4) election  - Mukul 17.02.16 (news 3pic) f2 (2) election  - Mukul 17.02.16 (news 3pic) f2 (3)মুকুল কান্তি দাশ, চকরিয়া :

অবশেষে সকল জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগ আসন্ন চকরিয়া পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মো.আলমগীর চৌধুরীকে একক প্রার্থী ঘোষণা করেছে। এর পূর্বেই জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) পৌর বিএনপি’র সভাপতি ও বর্তমান মেয়র আলহাজ্ব নুরুল ইসলাম হায়দারকে দলীয় একক প্রার্থী ঘোষণা করে। এতে করে সম্ভাব্য প্রার্থীর তালিকা কমে এসেছে। জাতীয় পার্টি দুই দিনের মধ্যে দলীয় প্রার্থী ঘোষণা করবে। পাশাপাশি কয়েকজন স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে নির্বাচন করবেন বলে একাধিক সুত্র নিশ্চিত করেছে।

বিভিন্ন সুত্র জানায়, বেশ কয়েকমাস ধরে আওয়ামীলীগ থেকে মনোনয়ন পেতে ১৫ জন নেতা নানাভাবে প্রচারণা ও তদবির শুরু করে। বিএনপি থেকে মাঠে নামে ৫ জন। সর্ব প্রথম দলীয় একক প্রার্থী ঘোষনা করে বিএনপি। বর্তমান মেয়র ও পৌর বিএনপি’র সভাপতি আলহাজ্ব নুরুল ইসলাম হায়দার ধানের শীষ প্রতিক নিয়ে নির্বাচন করবেন। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি আলহাজ্ব মিজানুর রহমান চৌধুরী খোকন মিয়া।

আওয়ামীলীগের প্রার্থী হয়ে নৌকার হাল ধরতে জেলা আওয়ামীলীগ ৫ জন সম্ভাব্য প্রার্থীর নাম তালিকা কেন্দ্রে পাঠায়।

বুধবার বিকালে ওই ৫জন থেকে মো.আলমগীর চৌধুরীকে নৌকা প্রতিক বরাদ্দ দিয়ে দলীয় একক প্রার্থী ঘোষণা করা হয়। এ তথ্য নিশ্চিত করতে ঢাকায় অবস্থান করা চকরিয়া পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি জাহেদুল ইসলাম লিটু, সাধারণ সম্পাদক আতিক উদ্দিন চৌধুরী ও আলমগীর চৌধুরীর সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হয়।

লিটু ও আতিক অভিন্ন বক্তব্যে বলেন, আলমগীর চৌধুরীকে একক প্রার্থী ঘোষণা করা মোটামুটি নিশ্চিত হয়েছি। শুধুমাত্র মনোনয়ন বোর্ডের স্বাক্ষরিত কাগজ পাওয়া বাকী রয়েছে।

আলমগীর চৌধুরী বলেন, বিকাল ৪টার পরে স্বাক্ষর হয়ে গেছে। আমাকে আওয়ামীলীগের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। আমি আল্লাহর কাছে শোকরিয়া আদায় করছি। জননেত্রী আওয়ামীলীগের সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ কেন্দ্রীয় জেলা, উপজেলা ও পৌর আওয়ামীলীগের নেতাদের কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। দোয়া চাচ্ছি সকল শ্রেণীর নেতা-কর্মী ও ভোটারদের কাছ থেকে।

এদিকে, কক্সবাজার জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি ও চকরিয়া-পেকুয়া আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মোহাম্মদ ইলিয়াছ বলেন, আজ বৃহস্পতিবার বা কাল শুক্রবার জাতীয় পার্টির পক্ষে দলীয় একক প্রার্থীর নাম ঘোষনা করা হবে। প্রাথমিকভাবে জাতীয় পার্টির নেতা এ্যাডভোকেট ওমর আলী, জসীম উদ্দিন ও পাক্ষিক মেহেদীর প্রধান সম্পাদক জসিম উদ্দিন কিশোরকে বিবেচনায় রাখা হয়েছে। এছাড়া অন্য একজন ভিন্ন দলের জনপ্রিয় নেতাকেও জাতীয় পার্টির মনোনয়ন দেয়া হতে পারে। তবে, কাকে মনোনয়ন দেয়া হবে তার চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত বুধবার বিকাল পর্যন্ত নেয়া হয়নি।

অপরদিকে, ভোটারদের মাঝে নতুন করে প্রার্থী নিয়ে আলোচনার খোরাক হয়ে উঠেছে স্বতন্ত্র প্রার্থী । বর্তমান ৪নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও বাংলাদেশ হিন্দু, বৌদ্ধ-খৃষ্টান ঐক্য পরিষদের কক্সবাজার জেলার সহ-সভাপতি লক্ষণ কান্তি দাশ ও বিএনপি নেতা আবদুল কাদের ছুট্টু মিয়া মেয়র পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী হতে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করায় এই আলোচনা। সবচেয়ে বেশী সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী লক্ষন কান্তি দাশকে নিয়েই আলোচনা হচ্ছে। তবে, ২২ ফেব্রুয়ারী মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিনেই নিশ্চিত হওয়া যাবে প্রার্থী হচ্ছেন কে কে।

Leave a Reply