শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২, ০৯:১৫ পূর্বাহ্ন

টেকনাফে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৬টি প্রতিষ্ঠানকে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা

প্রতিকী ছবি

Mobile Court 1

গিয়াস উদ্দিন ভুলু, টেকনাফ :

নিজের দেশের উৎপাদিত পণ্য পাটজাত শিল্প ও দেশের বিভিন্ন এলাকার পাট চাষিদের বাচাঁতে সরকার কঠোর পদক্ষেপ হাতে নিয়েছে। ২০১০ সালের আইন অনুযায়ী পাট দিয়ে তৈরী বিভিন্ন পণ্যকে ব্যবহার করার জন্য বাধ্যতামুলক করা হয়। তার পাশাপাশি প্লাস্টিক দিয়ে তৈরী বিভিন্ন প্রকারের মোড়কের পণ্যগুলো পরিহার করার জন্য আহবান করা হয়। এবং কঠোর আইন বাস্তবায়ন করা হয়। কিন্তু ব্যবসায়ীরা সরকারী আইন ও নির্দেশ উপেক্ষা করে পাটজাত শিল্প দিয়ে তৈরী মোড়ক গুলো ব্যবহার না করে প্রতিনিয়ত ব্যবহার করে যাচ্চে প্লাস্টিক দিয়ে তৈরী পন্য গুলো। সেই ধারাবাহিকতায় ১৮ অক্টোবর বেলা ১২টার দিকে টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শফিউল আলমের নেতৃত্বে প্লাস্টিক পণ্য ব্যবহারকারি বেশ কয়েকটি ব্যবসা প্রতিষ্টানকে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করে।

সুত্রে আরো জানা যায়, মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় টেকনাফ পৌরসভার শাপলা চত্বর এলাকায় ৬টি চাউলের দোকানে এক সাড়াঁশি অভিযান পরিচালনা করা হয়। সেই অভিযানে শাপলা চত্তর এলাকার আব্দুর রহিম ট্রেডার্স, আলমগীর এন্টার প্রাইজ, মো. ইউনুচ, মদিনা ট্রেডার্স, মো. হানিফ ও আইয়ুব স্টোরসহ ৬টি চাউল ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা প্রধান করা হয়। এবং টেকনাফ পৌরসভা সমস্ত ব্যবসায়ীদেরকে প্লাস্টিক মোড়কের পন্য পরিহার করে পাটজাত শিল্পের তৈরী পণ্যগুলো ব্যবহার করার জন্য নির্দেশ প্রধান করেন।

এব্যাপারে টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শফিউল আলম জানান, প্লাস্টিক মোড়কের পণ্যগুলো পরিহার করে পাটজাত মোড়কের পণ্য ব্যবহার করার জন্য সরকার বাধ্যতামূলক করে। ২০১০ সালে একটি আইন জারি করে।

https://www.facebook.com/coxviewnews

Design BY Hostitbd.Com