Home / প্রচ্ছদ / সাম্প্রতিক... / জাতীয় / দেশ ও দলের জন্য খালেদার ‘ভিশন-২০৩০’ ঘোষণা

দেশ ও দলের জন্য খালেদার ‘ভিশন-২০৩০’ ঘোষণা

Khaleda zia2আগামী দিনে দেশ ও দল কিভাবে পরিচালনা করা হবে সেই রূপরেখার সারসংক্ষেপ তুলে ধরেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। রুপরেখার নাম ‘ভিশন-২০৩০’।

শনিবার দুপুরে ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউটে বিএনপির ৬ষ্ঠ জাতীয় কাউন্সিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিএনপির চেয়ারপারসন এ ঘোষণা করেন।

তিনি বলেন, দেশের বিশিষ্ট জন, পেশাজীবী, বুদ্ধিজীবী ও সবার মতামতের ভিত্তিতে এই ভিশন পরিকল্পনা চূড়ান্ত করা হবে। এবং পরবর্তীতে তা জাতির সামনে তুলে ধরা হবে। ২০৩০ সালের মধ্যে বাংলাদেশ হবে উচ্চ মধ্যম আয়ের দেশ। মাথাপিছু আয় হবে পাঁচ হাজার মার্কিন ডলার। দেশে সুশাসন নিশ্চিত করতে সংসদে উচ্চ কক্ষ প্রতিষ্ঠা করা হবে। প্রধানমন্ত্রীর ক্ষমতায় ভারসাম্য আনা হবে।

তিনি আরো বলেন, জনগণের দুর্দশা আমাদের হতাশ করেছে। এমন অবস্থা চলতে পারে না। নষ্ট রাজনীতির আবর্ত থেকে বেরিয়ে আসতে না পারলে দেশ আরও ঘোর অন্ধকারে তলিয়ে যাবে। দেশ বাঁচাতে বিএনপি ভিশন ২০৩০ প্রণয়ন করতে যাচ্ছে। আমরা এমন এক উদার গণতান্ত্রিক সমাজ গড়তে চাই যেখানে সকলের মত প্রকাশের স্বাধীনতা ও নাগরিক অধিকার সংরক্ষিত হবে। আমরা সকল মত ও পথকে নিয়ে এমন একটি রাজনৈতিক সংস্কৃতি গড়ে তুলবো যেখানে বৈচিত্রের মধ্যে ঐক্য গড়ে উঠবে। বাংলাদেশ হবে একটি রেইনবো। জন আকাংখাকে মর্যাদা দিয়ে আমরা রাষ্ট্র পরিচালনা করবো। সব ধরণের অভিজ্ঞতার নির্যাস গ্রহণ করে দেশ পরিচালনাই হবে আমাদের মূল লক্ষ্য।

তিনি বলেন, আগামীতে তৈরি পেশাক শিল্প ও প্রবাসীদের কল্যাণে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নেয়া হবে। দেশী-বিদেশী বিনিয়োগ আশঙ্কাজনকভাবে কমে গেছে। উৎপাদন ও সেবা খাতে বিনিয়োগ বৃদ্ধির উদ্যোগ নেয়া হবে। যাকাত ফান্ডের ব্যবস্থাপনা উন্নয়ন করে অর্থনৈতিক উন্নয়নে কাজে লাগানো হবে। হজ ব্যবস্থাপনায় বিরাজমান নৈরাজ্য ও দুর্নীতির অবসান ঘটানো হবে। বিএনপি চায় বিভক্ত হওয়া জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করতে। এজন্য সবার মধ্যে সেতুবন্ধন রচনার প্রয়াস চালানো হবে। প্রতিহিংসার পরিবর্তে ভবিষ্যতে নতুন ধারার রাজনীতি ও সরকার করতে চায় বিএনপি।

সরকারের জুলুম নির্যাতনের কথা উল্লেখ করে খালেদা জিয়া বলেন, অনেকে চরম নির্যাতিত হয়েছেন। অনেকে পরিবার থেকে বিচ্ছিন্ন। অনেক পরিবার নিঃস্ব হয়ে গেছে। এই জুলুম ও অস্থিরতা বাংলাদেশ বহন করতে পারে না। আমি নিজেও চরম দুঃখ কষ্ট সয়ে আপনাদের মাঝেই রয়েছি এবং থাকবো। আমি পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে বিচ্ছিন্ন। আমার ছোট ছেলে বিদেশে মৃত্যুবরণ করেছে। তারেক রহমানকে হত্যার চেষ্টা হয়েছে। পঙ্গু হয়ে বিদেশে বসবাস করছে। এসব দুঃখ বেদনা বুকে চেপে এদেশের মানুষের অধিকার রক্ষায় চেষ্টা করে যাচ্ছি। বিএনপির জন্য এটি কঠিন সময় হলেও বিএনপি আবার জেগে উঠবে। এটি শুধু সময়ের ব্যাপারমাত্র।

সূত্র: শীর্ষনিউজডকমডেস্ক।

%d bloggers like this: