মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৪:৫৮ পূর্বাহ্ন

নেইমারকে ছাড়াই ব্রাজিলের চার গোল

http://coxview.com/wp-content/uploads/2022/03/Sports-Brazil-Football.jpg

http://coxview.com/wp-content/uploads/2022/03/Sports-Brazil-Football.jpg

অনলাইন ডেস্ক :
বিশ্বকাপ বাছাইয়ের শেষ ম্যাচে নেইমারকে ছাড়াই গোল উৎসব করেছে পাঁচ বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল। কার্ডজনিত নিষেধাজ্ঞার কারণে নেইমার ও ভিনিসিয়ুস জুনিয়র খেলতে না পারলেও অভাব হলো না গোলের। বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচেও ৪-০ গোলে বলিভিয়াকে হারিয়েছে ব্রাজিল। দলের পক্ষে জোড়া গোল করেছেন এভারটন ফরোয়ার্ড রিচার্লিসন। বাকি গোল দুটি করেন লুকাস পাকুয়েতা ও ব্রুনো গুইমারেস।

বলিভিয়ার বিপক্ষে ম্যাচে মাঠে ছিলেন না সেলেসাওদের সবচেয়ে বড় তারকা নেইমার। বলিভিয়ার রাজধানী লা পাজের এস্তাদিও হার্নান্দো সাইলেস স্টেডিয়ামে ম্যাচ খেলাকে তিনি অমানবিক বলে আখ্যায়িত করেছিলেন খেলা শুরুর আগে। ২০১৫ সালে এ মাঠে ম্যাচ খেলতে গিয়ে মুখে অক্সিজেন মাস্ক পরতে হয়েছিল ব্রাজিলকে। তবে উচ্চতাকে জয় করে বড় জয়ই তুলে নিয়েছে তিতের শিষ্যরা।

বাংলাদেশ সময় বুধবার (৩০ মার্চ) ভোর সাড়ে পাঁচটায় শুরু হওয়া ম্যাচে ব্রাজিল দলে ছিল না কার্ডজনিত নিষেধাজ্ঞায় থাকা নেইমার ও ভিনিসিয়াস। তবে এ ম্যাচে নিজের বেঞ্চের শক্তি পরখ করে দেখার সুযোগ পেয়েছে ব্রাজিল। গ্যাব্রিয়েল মার্তিনেল্লি, অ্যান্টোনিরাও সুযোগের সদ্ব্যবহার করেছেন মাঠে নেমে। চমৎকার খেলেছেন আর্সেনাল ও আয়াক্সের দুই তরুণ।

খেলায় ব্রাজিল প্রথম গোলের দেখা পায় ২৪ মিনিটে। দারুণ সলো মুভে প্রতিপক্ষের খেলোয়াড়কে কাটিয়ে পাস দেন ব্রুনো গুইমারেস। সেই পাস ধরে গোল করেন লুকাস পাকুয়েতা। দ্বিতীয় গোলটি আসে প্রথমার্ধের শেষ মিনিটে বলিভিয়ান ডিফেন্সের ভুল বুঝাবুঝিতে। আয়াক্সে খেলা অ্যান্টোনি ডান প্রান্ত থেকে ক্রস দেন অরক্ষিত রিচার্লিসনকে। তা থেকে গোল করতে ভুল করেননি এভারটন ফরোয়ার্ড।

ম্যাচে দারুণ কয়েকটি ড্রিবলিং আর স্কিল মুভ দেখিয়েছেন আর্সেনাল তারকা গ্যাব্রিয়েল মার্তিনেল্লি। দুই দুইবার গোলের কাছে গিয়েও ভাগ্য সুপ্রসন্ন না হওয়ায় প্রথম গোলটা আর পাওয়া হয়নি।

ব্রাজিলের পক্ষে তৃতীয় গোলটি করেন ব্রুনো গুইমারেস। ৬৬ মিনিটে বক্সের ভিতর থেকে দুর্দান্ত ভলিতে গোল করেন এ মিডফিল্ডার। দেশের হয়ে এটাই প্রথম গোল নিউক্যাসল ইউনাইটেড তারকার।

ম্যাচে গোলের সুযোগ পেয়েছিল বলিভিয়াও। প্রথমার্ধে গোলের ভালো সুযোগ পেয়েও গোল করতে ব্যর্থ হন বলিভিয়ান ফরোয়ার্ড হেনরি ভাসা। দুইবার গোলের কাছাকাছি গিয়েও আর গোল পাননি তিনি। বেশ কয়েকটি ভালো সেভ করেছেন ব্রাজিল গোলরক্ষক অ্যালিসনও।

রিচার্লিসন নিজের দ্বিতীয় ও দলের চতুর্থ গোলের দেখা পান খেলার অন্তিম মুহূর্তে। ইনজুরি সময়ের প্রথম মিনিটে গোলটি করেন রিচার্লিসন।

এ জয়ে দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে সর্বোচ্চ পয়েন্ট পাওয়ার রেকর্ড গড়ল ব্রাজিল। বাছাইপর্বে ১৭ ম্যাচের একটিও না হারা ব্রাজিলের সংগ্রহ ৪৫ পয়েন্ট। তাতে ভেঙে গেছে ২০০২ সালের কোরিয়া-জাপান বিশ্বকাপের বাছাই পর্বে বিয়েলসার আর্জেন্টিনার গড়া ৪৩ পয়েন্টের রেকর্ড। সে বিশ্বকাপে টোপ ফেভারিট আর্জেন্টিনা বিদায় নিয়েছিল গ্রুপ পর্ব থেকেই।

ব্রাজিলের জয়ের দিন ড্র করেছে আর্জেন্টিনা। ইকুয়েডরের বিপক্ষে ১-১ গোলের ড্রয়ে নিজেদের অপরাজিত থাকার রেকর্ড ছুঁয়েছে আর্জেন্টিনা। টানা ৩১ ম্যাচ অপরাজিত রয়েছে তারা।

https://www.facebook.com/coxview

Design BY Hostitbd.Com