রবিবার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ০৩:৪২ অপরাহ্ন

শিরোনাম

বাতাসে ভেসে আসছে লবণ : শহর জুড়ে লবণাক্ততার প্রভাব

Dipuদীপক শর্মা দীপু :

কক্সবাজার শহরের সর্বত্র লবণাক্ততার প্রভাব দেখা দিয়েছে। বসতবাড়ি আসবাবপত্র সহ বিভিন্ন জায়গায় লবণের স্যাঁত-স্যাঁতে অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে। শরীরে লবণের প্রভাব দেখা যাচ্ছে। এ অবস্থায় অনেকের মাঝে অজানা আতংক বিরাজ করছে।

৩ জুলাই সকালে দিকে ঘর ঝাড়– দিতে গিয়ে দেখা যায় ফ্লোরে স্যাঁত-স্যাঁতে অবস্থা পরে পানি দিয়ে ফ্লোর পরিস্কার করা হয়। এর দু’য়েক ঘন্টা পর আবার স্যাঁত-স্যাঁতে হয়ে যায় ফ্লোর। বার-বার পরিস্কার করার পরও স্যাঁত-স্যাঁতে অবস্থা থেকে রেহায় পাওয়া যায়নি। এভাবে বিষয়টি জানালেন শহরের বৌদ্ধমন্দির সড়কে বসবাসকারী সাংবাদিক ইকরাম চৌধুরী টিপু । একই কথা জানালেন ঘোনার পাড়ায় বসবাসকারী জেলা শিল্পকলা একাডেমীর সাধারণ সম্পাদক বিশ্বজিত পাল বিশু। আইনজীবী মোঃ আয়ুবুল ইসলাম জানান- জুমার নামাজ আদায় করে জেলা আইনজীবী সমিতির হল রুমে বসার সময় দেখা যায় চেয়ার-টেবিল ভিজে গেছে। মুছানোর পর আবারও চেয়ার-টেবিলে স্যাঁত-স্যাঁতে অবস্থা দেখা যায়। জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সিঁড়ির দু’পাশের গাছের বিটগুলোতে হাত দিয়ে ভেজা-ভেজা অনুভ‚ত হয়, বারান্দার ফ্লোর স্যাঁত-স্যাঁতে হয়ে যায়। বিষয়টি কেন অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে তা অনেকে বলতে পারেনি। আবার অনেকে জানিয়েছে লবণাক্ততার প্রভাবের কারণে এ অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে। বিষয়টি জানার জন্য কক্সবাজার আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ নাজমুল হক জানান, কক্সবাজার সমূদ্র উপক‚লীয় এলাকা হওয়ায় স্বাভাবিক ভাবে বাতাসে লবণের প্রভাব থাকে। তবে ৩ জুলাই হঠাৎ শহরে জুড়ে লবণাক্ততা বেড়ে যাওয়ার বিষয়টি জানা নেই, খবরও পায়নি। এই বিষয়ে উর্ধ্বতন বিশেষজ্ঞ কর্তাদের সাথে কথা বলে জেনে নেব। তবে প্রাথমিক ধারণা থেকে তিনি জানান, স্যাঁত-স্যাঁতে আবাহাওয়ায় এমন পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। অনেক সময় সমুদ্রের পানিতে লবণে কনা জমাট হয়ে সাদা ফ্যানা সৃষ্টি হয়। যা অনেক সময় তা সমুদ্রে বড় আকার ধারণ করে। এলবণের কণাযুক্ত ফ্যানা বাতাসে ভেসে আসার কারণে স্যাঁত-স্যাঁতে অবস্থা তথা লবণাক্ততার প্রভাব পড়ে। জলীয় আদ্রতা বৃষ্টি পাওয়ায় দক্ষিণ পূর্ব দিকে প্রবাহিত হয়। তাই দক্ষিণ পূর্বমুখী বসতবাড়ি বা স্থাপনায় লবণাক্ততার প্রভাব বেশি হয়।

কক্সবাজার পরিবেশ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক সরদার শরীফুল ইসলাম বলেন, আর্দ্রতা বেড়ে যাওয়ায় বাতাসের সাথে লবণের কণা ভেসে আসে উপক‚লে। এটা স্বাভাবিক ব্যাপার, তবে অতিরিক্ত লবণাক্ততার প্রভাব জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে হতে পারে, লবণাক্ততার প্রভাব ক্রমান্বয়ে বৃদ্ধি পেলে তা পরিবেশের জন্য অশনি সংকেত হতে পারে।

https://www.facebook.com/coxviewnews

Design BY Hostitbd.Com