বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ০৯:১৭ অপরাহ্ন

মিয়ানমার থেকে ফেরত এলো ১২৫ বাংলাদেশী অভিবাসী

Jushan (pic) 25-8-2015 (3)হুমায়ুন কবির জুশান, উখিয়া:

কক্সবাজারের উখিয়ার সীমান্তবর্তী নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম সীমান্ত পয়েন্ট দিয়ে মিয়ানমার থেকে ফেরত এসেছে ১২৫ জন বাংলাদেশী অভিবাসী। মঙ্গলবার সকাল দুপুর ২টার দিকে সীমান্তের ঘুমধুম ঢেঁকিবনিয়াস্থ বাংলাদেশ-মিয়ানমার মৈত্রী সেতু দিয়ে এসব অভিবাসীরা তাদের মালামাল নিয়ে বিজিবির সশস্ত্র প্রহরায় ফেরত আসার পর এসব অভিবাসীদের নিয়ে বিজিবি কক্সবাজার সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়।

এর আগে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কক্সবাজার ১৭ বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ব্যাটালিয়ন ও মিয়ানমারের ডেপুটি ডাইরেক্টর, ইমিগ্রেশন এন্ড ন্যাশনাল রেজিষ্ট্রেশন ডিপার্টমেন্ট পর্যায়ে মিয়ানমারের অভ্যন্তরে সীমান্ত পিলার ৩০/১ এর সন্নিকটে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে বাংলাদেশ বিজিবির পক্ষে নেতৃত্ব দেন কক্সবাজার ১৭ বিজিবির অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল রবিউল ইসলাম। অপরদিকে মিয়ানমারের পক্ষে নেতৃত্ব দেন সেদেশের ইমিগ্রেশন এন্ড ন্যাশনাল রেজিষ্ট্রেশন ডিপার্টমেন্টের ডেপুটি ডাইরেক্টর মি. স নেইন। বৈঠকে উভয় প্রতিনিধি দলের মধ্যে শুভেচ্ছা বিনিময় হয়।

পরে সাম্প্রতিককালের সাগরপথে মানবপাচারের শিকার হয়ে যে সকল বাংলাদেশী নাগরিক মিয়ানমারে আটকা অবস্থায় আছেন, তাদের মধ্য হতে জরুরী ভিত্তিতে প্রত্যাবাসনের জন্য বাংলাদেশ সরকারের পররাষ্ট্র ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের গৃহীত সিদ্ধান্ত মোতাবেক যাচাইকৃত ১২৫ জন বাংলাদেশী নাগরিককে আনুষ্ঠানিকভাবে ফেরত দেওয়া হয়। বিজিবি এসব অভিবাসীদের গ্রহণ করে কক্সবাজার জেলা প্রশাসন ও জেলা পুলিশের কাছে আইনগত প্রক্রিয়া সম্পাদনের জন্য হস্তান্তর করেন। পতাকা বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার ১৭ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের অতিরিক্ত পরিচালক উপ-অধিনায়ক জের ইমরান উল্লাহ সরকার, পিবিজিএমএস, বিজিবির কক্সবাজার সেক্টরের অতিরিক্ত পরিচালক (অপারেশন) মেজর মোঃ আমিনুল ইসলাম, কক্সবাজার জেলা প্রশাসন, কক্সবাজার জেলা পুলিশ ও ইমিগ্রেশন পুলিশের প্রতিনিধিবৃন্দ।

https://www.facebook.com/coxviewnews

Design BY Hostitbd.Com