Home / প্রচ্ছদ / মিয়ানমার বাহিনীর গুলিতে বাংলাদেশী কাঠুরিয়া নিহত

মিয়ানমার বাহিনীর গুলিতে বাংলাদেশী কাঠুরিয়া নিহত

Khon - 10 (a)মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম; লামা:

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্ত এলাকায় আবারও বেপরোয়া আচরণ করছে মিয়ানমারের সীমান্ত রক্ষিবাহিনী বিজিপি। তাদের বেপরোয়া আচরণে জনমনে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে।

সোমবার ১৪ ডিসেম্বর সকাল ১১টায় সীমান্তের ৪৬-৪৭ পিলারের মাঝামাঝি স্থানে মিয়ানমার বর্ডার গার্ড পুলিশের সদস্যরা অহেতুক গুলি বর্ষণ করে জয়নাল আবেদীন (২৩) নামের বাংলাদেশী এক কাঠুরিয়াকে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এসময় পালিয়ে রক্ষা পেয়েছে আরও দুই কাঠুরিয়া। নিহত জয়নাল আবেদীন নাইক্ষ্যংছড়ি সদর ইউনিয়নের আশারতলী গ্রামের মোহাম্মদ হোছেনের ছেলে।

ঘটনাস্থল থেকে ফিরে আসা একই গ্রামের খলিল আহমদের ছেলে আমান উল্লাহ ও আলী আহমদের ছেলে নুরুল আমিন গণমাধ্যমকর্মীদের জানিয়েছেন, তারা সোমবার সকালে প্রতিদিনের ন্যায় সীমান্ত এলাকায় লাকড়ি সংগ্রহ করতে যায়। কিন্তু সকাল ১১টার দিকে আকষ্মিক মিয়ানমার বাহিনী বাংলাদেশ অংশে প্রবেশ করে অহেতুকভাবে তাদেরকে লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করে। এসময় তারা নানা চেষ্টার পর পালিয়ে আসতে সক্ষম হলেও জয়নাল আবেদীন ঘটনাস্থলে গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা গেছেন। পরে জয়নাল আবেদীনের মৃতদেহটি নিয়ে যায় মিয়ানমার সীমান্তরক্ষী বাহিনী।

ঘটনার বিষয়ে রামু ৫০ বিজিবির অধিনায়ক লে.কর্ণেল শফিউল আলম পারভেজ বলেন, স্থানীয়দের মাধ্যমে এ ধরণের খবর পেয়ে সোমবার বিকালে বিজিবির একটি টহল দল ঘটনাস্থলে তল্লাসী চালিয়েছিল। কিন্তু এ সময় কোন মৃতদেহ পাওয়া যায়নি।

নাইক্ষ্যংছড়ি জোন কমান্ডার লে.কর্ণেল হাসান মোরশেদ পিএসসি জি প্লাস বলেন, মিয়ানমার বাহিনীর গুলিতে বাংলাদেশী এক কাঠুরিয়া গুলিবিদ্ধ হয়েছে বলে শুনেছি। প্রতিপক্ষের অধিনায়ককে বিষয়টি মুঠোফোনে জানানো হয়েছে। প্রয়োজন হলে চিঠিও পাঠানো হবে। তবে, সীমান্ত পরিস্থিতি বরাবরের মত শান্ত রয়েছে।

%d bloggers like this: