মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৫:২০ পূর্বাহ্ন

যক্ষ্মা মুক্ত দেশ গড়তে হলে সচেতনতার কোন বিকল্প নেই

যক্ষ্মা মুক্ত দেশ গড়তে হলে সচেতনতার কোন বিকল্প নেই

যক্ষ্মা মুক্ত দেশ গড়তে হলে সচেতনতার কোন বিকল্প নেই

অজিত কুমার দাশ হিমু, কক্সভিউ:
যক্ষ্মা একটি জীবাণু ঘটিত সংক্রামন রোগ। এ রোগের কারণে বাংলাদেশে প্রতি বছর প্রতি লাখে ৫১ জন মানুষ মারা যায়। এর মুল কারণ হলো সচেতনতার অভাব। আমাদের দেশে যক্ষ্মা সম্পর্কে সামাজিক কুসংস্কার এখনও রয়েছে গেছে। কফ্, হাঁচি ও কাশির মাধ্যমে এ রোগের জীবাণু ছড়ায়। ৩ সপ্তাহের বেশী কাশি হলে কফ পরীক্ষা করা দরকার। বর্তমানে ডটস পদ্ধতিতে এ রোগ সম্পূর্ণ ভাল হচ্ছে। আমরা মনে করি যক্ষ্মা রোগ প্রতিরোধে জনসচেতনতার মধ্যমে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।
১৭ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় কক্সবাজার বীর শ্রেষ্ঠ রুহুল আমিন ষ্টেডিয়াম মিলনায়তনে বাংলাদেশ জাতীয় যক্ষ্মা নিরোধ সমিতি (নাটাব), কক্সবাজার জেলা কর্তৃক আয়োজিত ক্রীড়া সদস্যদের সাথে যক্ষ্মা রোগ প্রতিরোধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে জেলা মত বিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের অধ্যাপক ডা. মুহাম্মদ নুরুল আলম কথাগুলো বলেন।
তিনি আরও বলেন, সচেতনতাই পারে যক্ষ্মা রোগ নিয়ন্ত্রণে আনতে। এরোগ থেকে পরিত্রান পেতে হলে আমাদের সচেতন হতে হবে এবং সম্মিলিত প্রচেষ্ঠায় যক্ষ্মা রোগকে প্রতিরোধ করতে হবে। মনে রাখবেন সরকার বিনামূল্যে যক্ষ্মা রোগের চিকিত্সা প্রদান করছে। আসুন আমরা সচেতন হই এবং যক্ষ্মা রোগ প্রতিরোধ করি।
বাংলাদেশ জাতীয় যক্ষ্মা নিরোধ সমিতি (নাটাব), কক্সবাজার জেলা শাখার সভাপতি কবি কামরুল হাসান এর সভাপতিত্বে ও অধ্যাপক অজিত দাশ এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক অনুপ বড়ুয়া অপু, কার্যকরী সদস্য ও ক্রীড়া সংগঠক রতন দাশ, চ্যানেল আই’র স্টাফ রিপোর্টার সরওয়ার আজম মানিক, মহিলা আওয়ামীলীগ নেত্রী হামিদা তাহের প্রমুখ।

https://www.facebook.com/coxview

Design BY Hostitbd.Com