Home / প্রচ্ছদ / রাজাখালীতে শিশু বিয়ে, শিশু শ্রম ও শিশু শাস্তি বন্ধে ওয়ার্ড উন্নয়ন কমিটির ইউনিয়ন জনসচেতনতা সভা অনুষ্ঠিত

রাজাখালীতে শিশু বিয়ে, শিশু শ্রম ও শিশু শাস্তি বন্ধে ওয়ার্ড উন্নয়ন কমিটির ইউনিয়ন জনসচেতনতা সভা অনুষ্ঠিত

Shagir 28-12-2015 (news & 4pic) f1 -2এস.এম ছগির আহমদ আজগরী; পেকুয়া :

কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলার রাজাখালী ইউনিয়নে শিশু বিয়ে, শিশু শ্রম ও শিশু শাস্তি বন্ধে ওয়ার্ড উন্নয়ন কমিটির জনসচেতনতা মূলক ইউনিয়ন মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার সকাল ১০টায় রাজাখালী এয়ার আলী খান উচ্চ বিদ্যালয়ের হল রুমে এ মহতি সভা সম্পন্ন হয়।

সভায় সভাপতিত্ব ও সভা উদ্বোধন করেন রাজাখালী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আ’লীগ নেতা আলহাজ নুরুল ইসলাম বিএসসি। এতে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন পেকুয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মারুফুর রশিদ খান। ইউনিসেফ বাংলাদেশের সহযোগিতায় ব্র্যাক অ্যাডভোকেসি ফর সোশ্যাল চেইঞ্জ জনসম্পৃক্ততায় সামাজিক আচরণগত পরিবর্তন প্রকল্পের অধীনে আয়োজিত এ কর্মশালায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন ব্র্যাক সি ফর ডি উপজেলা ম্যানেজার মুহাম্মদ সিরাজুম মুনীর।

কর্মশালায় জনসম্পৃক্ততায় সামাজিক রীতি ও আচরনগত পরিবর্তনের তিনটি ক্ষতিকর দিক নিয়ে আলোচনা করা হয়। সেগুলো হলোঃ শিশু বিয়ে, শিশু শ্রম ও শিশু শাস্তি বন্ধ করন। কর্মশালা পরিচালনা ও মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন মনিটরিং অফিসার আবির আহাদ ব্র্যাক সিফরডি কক্সবাজার।

প্রধান অতিথি বলেন, শিশু বিয়ে, শিশু শ্রম ও শিশু শাস্তি বন্ধে ইউনিয়নের সকল ওয়ার্ডের সদস্যদের নিজ নিজ অবস্থান থেকে কার্যকর ভূমিকা রাখতে হবে। ইউনিয়ন সভায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাষ্টার এম. আজমগীর চৌধুরী, রাজাখালী এয়ার আলী খান উচ্চ বিদ্যালয়ের সিঃ শিক্ষক নিরুপন দাশ, ডাঃ সাহাব উদ্দিন ও কিশোরী তছলিমা বেগম প্রমুখ।

সভায় রাজাখালী ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডের ওয়ার্ড উন্নয়ন কমিটির ১১জন করে সদস্য উপস্থিত ছিলেন। সভার সহযোগিতায় ছিলেন মোঃ আবুল বশর, সাইফুল্লা খালেদ ও আমেনা বেগম।

এসময় বক্তারা শিশু বিয়ের ফলেই সমাজে বহু বিবাহ, তালাক, যৌতুক, শিশু শ্রম, শিশু শাস্তি, পুষ্টিহীনতা, মাতৃমৃত্যু ও শিশু মৃত্যু বেড়ে যাচ্ছে বলে মন্তব্য করে ২০১৬ সাল বরনের মাধ্যমে আগামী বিজয়ের মাস ডিসেম্বরের মধ্যেই রাজাখালী ইউনিয়ন যেন শিশু বিয়ে মুক্ত একটি মডেল ইউনিয়ণে পরিণতে অঙ্গীকার করা হয়।

%d bloggers like this: