শুক্রবার, ১৯ অগাস্ট ২০২২, ০৪:৪৮ অপরাহ্ন

শিরোনাম
বিএনপির জন্য অপেক্ষা করবে নির্বাচন কমিশন লামায় গৃহবধূর মৃত্যু নিয়ে ধূম্রজাল লামায় বিদ্যুৎ যাচ্ছে অটোরিকশা-টমটমের পেটে লামায় ৬৯ লিটার চোলাই মদসহ ব্যবসায়ী আটক ১ ঈদগড়ের চালক শহিদুল হত্যাকান্ডে আটক আসামীদের জামিন না মঞ্জুর এবং পলাতক আসামীদের গ্রেফতারের দাবী জানিয়েছেন অসহায় পিতা শুভ জন্মাষ্টমী আজ সারা দেশে সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে রামুতে আ’লীগের সমাবেশ অনুষ্ঠিত দেশব্যাপী সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে ঈদগাঁওতে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ কক্সবাজার সৈকতে নিখোঁজ পর্যটকের মরদেহ উদ্ধার  বিশ্বের সবচেয়ে পাতলা ভাঁজযোগ্য ফোন দেখাল শাওমি ঘোষণার আগেই বাড়লো চিনির দাম

রোহিঙ্গা গণহত্যার প্রমাণ নেই : মিয়ানমার

মিয়ানমার সরকারের গঠিত একটি কমিশন দাবি করেছে, রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গা মুসলিমদের বিরুদ্ধে গণহত্যার কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

কমিশন তাদের অন্তবর্তীকালীন প্রতিবেদনে জানিয়েছে, গণধর্ষণের যে অভিযোগ উঠেছে, তার সমর্থনেও যথেষ্ট প্রমাণ নেই। তবে নিরাপত্তা বাহিনীর বিরুদ্ধে রোহিঙ্গাদের নির্বিচারে হত্যার যে অভিযোগ রয়েছে, সে বিষয়টি প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়নি।

বিবিসি অনলাইনের এক খবরে বুধবার এ তথ্য জানানো হয়েছে।

অক্টোবর মাসে মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে সেনাবাহিনীর সন্ত্রাসবিরোধী অভিযান শুরুর ঘোষণা দেওয়ার পর থেকে তাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন কায়দায় নির্যাতন-নিপীড়নের অভিযোগ উঠেছে। অনেকের মতে, রোহিঙ্গাদের নির্মূলে অভিযান চালাচ্ছে মিয়ানমার। এ নিয়ে আন্তর্জাতিক মহলের তীব্র নিন্দার মুখে রয়েছেন অং সান সু চি।

মিয়ানমার সরকার প্রাক্তন জেনারেল মাইয়িন্ট সোয়ের নেতৃত্বে তদন্ত কমিশন গঠন করে। জানুয়ারি মাস শেষ হওয়ার আগে এ বিষয়ে তার চূড়ান্ত প্রতিবেদন দেওয়ার কথা রয়েছে।

অন্তবর্তীকালীন প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, যেহেতু রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গারা বসবাস করছে এবং তাদের ধর্মীয় স্থাপনাগুলো ধ্বংস করা হয়নি, সেহেতু সেখানে গণহত্যা হয়নি। নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের দ্বারা গণধর্ষণের অভিযোগেরও যথেষ্ট প্রমাণ পায়নি তারা।

অগ্নি সংযোগ, গণগ্রেপ্তার ও নির্যাতনের অভিযোগ এখনো খতিয়ে দেখছে কমিশন। তবে অদ্ভুত বিষয় হলো, মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনীর বিরুদ্ধে নির্বিচার মানুষ হত্যার যে অভিযোগ রয়েছে, সে বিষয়টি প্রতিবেদনে একেবারেই উল্লেখ করা হয়নি। নিরাপত্তা বাহিনীর ওপর রোহিঙ্গা মিলিশিয়াদের হামলার প্রতিশোধ নিতে মানুষ হত্যা করা হচ্ছে বলে দাবি উঠেছে।

রাখাইন রাজ্যের সংকট তিন মাস ধরে চলছে। বর্তমানে পরিস্থিতির সামান্য উন্নতি হলেও তা যেকোনো সময় আবার ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

সূত্র:risingbd.com

https://www.facebook.com/coxview

Design BY Hostitbd.Com