Home / প্রচ্ছদ / সাম্প্রতিক... / নির্বাচন সংক্রান্ত / লামা পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থীর যত অভিযোগ!

লামা পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থীর যত অভিযোগ!

https://i1.wp.com/coxview.com/wp-content/uploads/2021/01/press-conference-Rafiq-1.13.21.jpg?resize=540%2C313

সাংবাদিক সম্মেলনে অভিযোগ গুলো পাঠ করছেন বিএনপির প্রার্থী মোঃ শাহীন।

মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম; লামা :
আসন্ন (১৬ জানুয়ারী, শনিবার) লামা পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। নির্বাচনকে সামনে রেখে সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও একটি গ্রহণযোগ্য নির্বাচন দাবী করে অসংখ্য অভিযোগ নিয়ে বিএনপির মেয়র প্রার্থী মোঃ শাহীন নির্বাচনী কার্যালয়ে এক সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন। মঙ্গলবার বিকাল ৪টায় লামা বাজারের প্রেসক্লাব গলিস্থ ধানের শীষ প্রতীকের নির্বাচনী অফিসে এই সাংবাদিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সাংবাদিক সম্মেলনে বিএনপির নেতৃবৃন্দ, প্রার্থীর সমর্থক-কর্মী এবং লামা উপজেলায় কর্মরত প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিকস মিডিয়ার সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

বিএনপির প্রার্থী মোঃ শাহীন জেলা নির্বাচন অফিসার ও রিটার্নিং অফিসারের কাছে করা এক আবেদনে “লামা পৌরসভার সাধারণ নির্বাচন ২০২১ এর মারাত্মক ঝুকিপূর্ণ ২নং ওয়ার্ডের ভোট কেন্দ্রটি পরিবর্তনের আবেদন করেন।” জেলা নির্বাচন অফিসার ও রিটার্নিং অফিসারের কাছে করা আরেক আবেদনে লামা পৌরসভার সাধারণ নির্বাচন ২০২১ ভোট কেন্দ্র ২, ৪ ও ৬নং ঝুকিপূর্ণ ভোট কেন্দ্রে স্পেশাল ম্যাজিস্ট্রেট ও বাংলাদেশ সেনাবাহিনী নিয়োগ সহ বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থার মাধ্যমে ভোট গ্রহণের দাবী করেন।” অপর আরেক অভিযোগে লামা পৌরসভার সাধারণ নির্বাচন ২০২১ এর ২নং ও ৪নং ওয়ার্ডের বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আওয়ামীলীগ সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থীদেরকে ভোট কেন্দ্রে নিরব থাকার জন্য অর্থাৎ তারা সুষ্ঠু নির্বাচনে কোন ঝামেলা সৃষ্টি করিতে না পারে সে লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আবেদন করেন।” “সর্বশেষ লামা পৌরসভার সাধারণ নির্বাচন ২০২১ এ সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে ভোট কেন্দ্রে বিতর্কিত ২৩ ব্যক্তিদেরকে প্রিজাইডিং, সহকারী প্রিজাইডিং ও পোলিং অফিসার হিসেবে নির্বাচনী দায়িত্ব না দেওয়ার আবেদন করে বিএনপির প্রার্থী।” এদিকে উল্লেখিত অভিযোগ গুলো সদয় অবগতির জন্য সংশ্লিষ্ট অফিস ও বিভিন্ন দপ্তরে অনুলিপি দেয়া হয়।

এইসব অভিযোগের বিষয়ে মুঠোফোনে কথা হয় জেলা নির্বাচন অফিসার ও লামা পৌরসভার সাধারণ নির্বাচন ২০২১ এর দায়িত্বরত রিটার্নিং অফিসার মোঃ রেজাউল করিমের সাথে। তিনি বলেন, আমি এখনো অভিযোগ গুলো হাতে পায়নি। সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন সম্পন্ন করতে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। আমরা সকলের সহযোগিতা চাই। কেউ আইন অমান্য করলে তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Leave a Reply

%d bloggers like this: