Home / প্রচ্ছদ / সাম্প্রতিক... / জাতীয় / সংশোধন হচ্ছে উপজেলা পরিষদ আইন

সংশোধন হচ্ছে উপজেলা পরিষদ আইন

upozila pic

সংশোধন করা হচ্ছে উপজেলা পরিষদ আইন-২০১১। পরিষদকে আরো কার্যকর ও শক্তিশালী করতে সংশোধনী আইনে বাড়ছে চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানদের ক্ষমতা। পরিবর্তন আসছে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) ক্ষমতায়।

সংশোধনী আইনে ইউএনও মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা থাকবেন না। তিনি সাচিবিক দায়িত্ব পালন করবেন উপজেলা চেয়ারম্যানদের পরামর্শ নিয়ে। উপজেলা পরিষদে ন্যস্ত উপজেলা কর্মকর্তার দপ্তরসহ সব সরকারি দপ্তরের উন্নয়নমূলক কাজের মুখ্য সিদ্ধান্ত নেবেন উপজেলা চেয়ারম্যান। কেবলমাত্র সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে সহায়তা করবেন ইউএনও।

প্রস্তাবিত আইনে উন্নয়নমূলক কমিটি বা কমিটিগুলোর সভাপতিও হবেন উপজেলা চেয়ারম্যান বা ভাইস চেয়ারম্যান। ইউএনও এ ধরনের কমিটির সভাপতি হতে পারবেন না। সংসদ সদস্য আর পরামর্শক হিসেবে থাকছেন না পরিষদে। থাকলেও তাদের পরামর্শের ক্ষেত্র সুনির্দিষ্ট করা হবে। এরই মধ্যে সংশোধনী আইনটি পর্যালোচনা করছে স্থানীয় সরকার বিভাগ। শিগগিরই এর খসড়া চূড়ান্ত করা হবে।

উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানদের বেতন-ভাতা দ্বিগুণ করে সহসাই প্রজ্ঞাপন জারি হতে পারে। এরই মধ্যে এ নিয়ে স্থানীয় সরকার বিভাগ একাধিক বৈঠকও করেছে। বর্তমানে উপজেলা চেয়ারম্যানের মাসিক বেতন সাড়ে ২০ হাজার টাকা এবং ভাইস চেয়ারম্যানদের বেতন সাড়ে ১৪ হাজার টাকা। চেয়ারম্যান একজন প্রথম শ্রেণির কর্মকর্তার মতো ভ্রমণ-ভাতাসহ অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা পেয়ে থাকেন। এ ছাড়া চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানরা দায়িত্বভাতা পান।

দীর্ঘদিন বিলুপ্ত থাকার পর সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে উপজেলা পরিষদ চালু করার উদ্যোগ নেওয়া হয়। আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকার ক্ষমতা গ্রহণের পর ২০০৯ সালের ২২ জানুয়ারি দেশের ৪৮১টি উপজেলায় নির্বাচন হয়। একই বছর ফেব্রুয়ারির শেষ সপ্তাহে নির্বাচিত চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যানদের শপথ সম্পন্ন হয়। একই বছরের ৬ এপ্রিল স্থানীয় সরকার (উপজেলা অধ্যাদেশ) বিলুপ্ত করে উপজেলা পরিষদ আইন-১৯৯৮ সংশোধন করে সরকার। ওই আইনে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে উপজেলা পরিষদের সচিব করা হয়। ওই সময়ে এ আইনে সন্তুষ্ট হতে পারেননি আমলারা। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তারা এ সময় সরকারের উচ্চ পর্যায়ে জানান, এ আইনের মাধ্যমে তাদের মর্যাদা ক্ষুন্ন করা হয়েছে। পরে উপজেলা চেয়ারম্যানদের প্রবল আপত্তির মুখে ২০১১ সালে উপজেলা পরিষদ আইন সংশোধন করে ইউএনওদের মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা করা হয়।

সূত্র: শীর্ষ নিউজডটকম,ডেস্ক।

%d bloggers like this: