সেঙ্গিজ

Muskrat

অনেকটা হাতির মতো আবার ইঁদুর সদৃশ এই প্রাণীটিকে বলা হচ্ছে এলিফ্যান্ট শ্রু বা হস্তিছুঁচো। কেনিয়ার সোমালি সীমান্তের বনি-দোদোরি বনে স্তন্যপায়ী এই প্রাণীটি দেখা যায়। গোটা আফ্রিকায় এইরকম ১৭ প্রজাতির এলিফ্যান্ট শ্রু দেখা যায়।

এই প্রজাতির প্রাণীদের হস্তি ছুঁচো নাম হবার কারণ এদের হাতির শুঁড়ের মতোই লম্বা নাক আছে। আবার তারা অনেকটাই সত্যিকারে ছুঁচোর মতোই। কেনিয়া ওয়ার্ল্ডলাইফ সার্ভিসের বরাতে জানা যায়, নতুন প্রজাতির এই ছুঁচোটির সঙ্গে হাতির অনেক মিলই আছে। এটির আরেক নাম হলো সেঙ্গিজ।

সেঙ্গিজ আফ্রিকার আদিম শ্রেণীভূক্ত প্রাণীগোত্রের মধ্যে পড়ে যা ১ কোটি বছর আগে আফ্রিকায় দেখা যেতো। আর এই প্রাণীটির পূর্বপুরুষের সঙ্গে হাতি, সি-কাউ, হাইরেক্স , আর্ডভার্ক, টেনরেস এবং গোল্ডেন মোলের সঙ্গে মিল পাওয়া যায়। খরগোস আকৃতির সেংগিটির ওজন ৭০০ গ্রাম। হাতির শুঁড়ের মত দেখতে এর একটি লম্বা, নমনীয় নাক আছে। অদ্ভুত বিষয় হল এই এলিফ্যান্ট শ্রু, ইঁদুরের মত লম্বা নাকওয়ালা এক প্রকার প্রাণী থেকে উদ্ভূত হয়নি। বরং হাতি ও এই শ্রুদের পূর্বপুরুষ একই ছিল।

সূত্র:allanimalshere.blogspot.com

Leave a Reply