Home / প্রচ্ছদ / সাম্প্রতিক... / ভ্রমণ ও পর্যটন / সেন্টমার্টিনে পর্যটকবাহি জাহাজ এখন ‘না’

সেন্টমার্টিনে পর্যটকবাহি জাহাজ এখন ‘না’

https://i0.wp.com/coxview.com/wp-content/uploads/2021/11/Sentmartin-Dipu-2-11-21-1.jpg?resize=540%2C344

সেন্টমার্টিনের জেটি ঘাট মেরামত কার্যক্রম পরিদর্শন শেষে পরিদর্শন দল

দীপক শর্মা দীপু, সেন্টমার্টিন থেকে ফিরে…….
দেশের একমাত্র প্রবাল দ্বীপ সেন্টমার্টিনে এখন পর্যটন মৌসুমেও পর্যটকবাহি জাহাজ যেতে পারছেনা। সেন্টমার্টিনের জেটি এখনো পুরোপুরি মেরামত না হওয়ায় কিছুটা ঝুঁকি থাকায় আপাতত সেন্টমার্টিনে পর্যটক যাতায়ত বন্ধ রয়েছে।
https://i0.wp.com/coxview.com/wp-content/uploads/2021/11/Sentmartin-Dipu-2-11-21-2.jpg?resize=540%2C360

সেন্টমার্টিনের ঝুঁকিপূর্ণ জেটি ঘাট

১ নভেম্বর সরেজমিনে সেন্টমার্টিনের জেটি ঘাট মেরামত কার্যক্রম পরিদর্শন শেষে পরিদর্শন দল এ মতামত জানান। জেলা প্রশাসকের নির্দেশে গঠিত পরিদর্শনদলের প্রধান অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আমিন আল পারভেজ জানান, প্রতিনিধি দলের সকল সদস্য সেন্টমার্টিন জেটিঘাট সরেজমিনে পরিদর্শন করেন। পরিদর্শন শেষে সকলে গুরুত্বপূর্ণ মতামত ব্যক্ত করেন। সবাই সেন্টমার্টিনে পর্যটকসেবা বৃদ্ধি ও পর্যটকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার উপর গুরুত্বারোপ করেন।

তিনি আরো বলেন, সেবা দিতে গিয়ে পর্যটকদের ঝুঁকির মুখে ফেলা যাবেনা। ঘূর্ণিঝড় ‍‍”ইয়াস” এর প্রভাবে ভেঙ্গে যাওয়া সেন্টমার্টিনের জেটি এখনো পূর্ণ মেরামত না হওয়ায় কিছুটা ঝুঁকি এখনো রয়ে গেছে তাই এখন পর্যটকবাহি কোন জাহাজ সেন্টমার্টিনে যেতে অনুমতি পাচ্ছেনা। তবে জেটি মেরামত সম্পূর্ণ করে দ্রুত সময়ে সেন্টমার্টিনে জাহাজ চলাচলে অনুমতি দেয়া হবে। পর্যটকদের নিরাপত্তার স্বার্থে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানিয়ে তিনি আরো বলেন, সেন্টমার্টিন ভ্রমণ আরো আনন্দদায়ক ও নিরাপদ করার জন্য সমন্বিত উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। সেন্টমার্টিনের জেটিঘাট দ্রুত সময়ে মেরামতের জন্য গ্রহণ করা হয়েছে পরিকল্পিত পরিকল্পনা।

https://i0.wp.com/coxview.com/wp-content/uploads/2021/11/Sentmartin-Dipu-2-11-21-3.jpg?resize=540%2C360

সেন্টমার্টিনের জেটি ঘাট মেরামত কার্যক্রম পরিদর্শন শেষে পরিদর্শন দল

পরিদর্শন দলের অন্যতম সদস্য অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আবু সুফিয়ান বলেন, সেন্টমার্টিন দেশের অন্যতম প্রধান আকর্ষনীয় পর্যটন এলাকা হওয়ায় দেশি বিদেশী পর্যটকরা সেন্টমার্টিনে আসতে আগ্রহী বেশি। তাই বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়ে সেন্টমার্টিনের জেটিঘাটের সমস্যা সমাধানে উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। জেটিঘাটের সমস্যা চিহ্নিত হওয়ায় দ্রুত সময়ে সমাধান হবে বলে তিনি আশা ব্যক্ত করেন।

প্রতিনিধি দলের অন্যান্য সদস্যদের মধ্যে মতামত ব্যক্ত করেন টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পারভেজ চৌধুরী, জেলা পুলিশের সহকারি পুলিশ সুপার এসএম রকীব উর রাজা, সহকারি কমিশনার (পর্যটন সেলের দায়িত্বপ্রাপ্ত) সৈয়দ মুরাদ ইসলাম, এলজিইডির উপজেলা প্রকৌশলী আরিফ হোসেন, সাংবাদিক দীপক শর্মা দীপু, ওসি টুরিস্ট (টেকনাফ) অমৃত কুমার দেব, নৌ পুলিশের ইনচার্জ মো: নান্নু মিয়া, টুয়াকের সভাপতি আনোয়ার কামাল, পর্যটন ও পার্বত্য সম্পাদক তৌহিদুল ইসলাম তোহা, পর্যটন শিল্প উদ্যোক্তা বাহাদুর হোসাইন।

%d bloggers like this: