Home / সাম্প্রতিক... / ধর্ম / সদর উপজেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদের প্রস্তুতি সভা সম্পন্ন

সদর উপজেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদের প্রস্তুতি সভা সম্পন্ন

প্রেস বিজ্ঞপ্তি :
আসন্ন শারদীয় দুর্গাপূজা কক্সবাজার সদর উপজেলাব্যাপি কেন্দ্রীয় নির্দেশনা অনুযায়ী সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে পালনের লক্ষ্যে আজ (শুক্রবার) বিকেলে ব্রাহ্ম মন্দিরস্থ (জেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদ কার্যালয়ে) সংগঠনের সভাপতি- দীপক দাশের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক- বাবলা পালের পরিচালনায় এক প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভার শুরুতে পবিত্র গীতাপাঠ করেন- সংগঠনের মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা- মাষ্টার সবিতা মল্লি­ক, বাংলাদেশ পূজা উদ্যাপন পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি- মেজর জেনারেল চিত্তরঞ্জন দত্ত, জালালাবাদ ইউনিয়নের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক- দেবাশীষ ভট্টাচার্য্য অনিক ও খুরুশকুল ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার- জয়বর্ধন দে শিশুকন্যা জিতিকা দে’র অকাল মৃত্যুতে তাঁদের আত্মার শান্তি কামনায় এক মিনিট দাঁড়িয়ে নিরবতা পালন এবং শহর পূজা কমিটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক জনি ধরের সুস্থতা কামনা করা হয়।

এসময় বক্তব্য রাখেন- সংগঠনের সহ-সভাপতি ও জালালাবাদ ইউনিয়নের সভাপতি- ডা. বিকাশ কান্তি দে, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক- কানন বিশ্বাস, আইন-বিষয়ক সম্পাদক এড. উজ্জ্বল কান্তি দাশ, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক- সজীব দাশ, দপ্তর সম্পাদক- হারাধন রুদ্র, গ্রন্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক- দিপু দাশ, প্রচার সম্পাদক- তাপস পাল, কার্যকরী সদস্য- অমল কান্তি দে, সাংবাদিক বলরাম দাশ অনুপম, মাষ্টার রতন কান্তি দে, অভিযান শর্মা, মিটন শর্মা, জুয়েল পাল, তপন দাশ, সৌমিক পাল, রুবেল নাথ, খুরুশকুল ইউনিয়ন পূজা কমিটির সভাপতি- মাষ্টার রতন কান্তি দে, সাধারণ সম্পাদক- শিবলু পাল, চৌফলদন্ডী ইউনিয়নের সভাপতি- সুরেশ শর্মা, সাধারন সম্পাদক- টিটু কান্তি দে, ভারুয়াখালী ইউনিয়নের সভাপতি- আপন শর্মা, ঈদগাঁও ইউনিয়নের সভাপতি- সত্যজিৎ দাশগুপ্ত, সাধারণ সম্পাদক- জনি পাল, ইসলামাবাদ ইউনিয়নের সভাপতি- সুমন কান্তি দে, সাধারণ সম্পাদক- নিখিল দাশ, পোকখালী ইউনিয়নের সভাপতি- অজিত কান্তি দে, সাধারণ সম্পাদক- পলাশ কান্তি দে, ঝিলংজা ইউনিয়নের আহবায়ক- তুষার ধর, সদস্য সচিব- সুমন শর্মা, পি.এম.খালী ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক- সজীব দাশ, নারায়ন দাশ, মিটন শর্মা প্রমুখ।

আরো পড়ুন- ঈদগাঁওর হাসিনাপাড়া-দরগাহ ও শিয়া পাড়া সড়কের ব্রীজটি হবে কবে ?

সভায় স্ব-স্ব ইউনিয়নের প্রতিমা ও ঘট পূজার তালিকা এবং যে সকল ইউনিয়নের পূর্নাঙ্গ কমিটি এখনো জমা দেওয়া হয় নাই, তা আগামী ১১ সেপ্টেম্বরের মধ্যে জমা না দিলে উক্ত ইউনিয়ন কমিটিগুলো বাতিল বলে গণ্য হবে। এবারে সদর উপজেলার পূজা মন্ডপে সাউন্ড সিস্টেম, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, জমায়েত না করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয় এবং সদর উপজেলার কার্যকরী কমিটিতে মৃত, দেশে না থাকা এবং সংগঠনের কার্যক্রমের সাথে সম্পৃক্ত না থাকার কারণে ৫জন কার্যকরী কমিটির সদস্যের পরিবর্তে নতুন ৫জন কোয়াবশন করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয় এবং প্রত্যেক ইউনিয়নে আসন্ন শারদীয় দুর্গাপূজা সুন্দর ও সুষ্ঠভাবে পালনের লক্ষ্যে প্রস্তুতি সভা করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

সভার শেষে সংগঠনের সভাপতি সমাপনী বক্তব্যে বলেন- আসন্ন শারদীয় দুর্গাপূজা প্রতি বছরের ন্যায় এবছরও জাতি-ধর্ম-বর্ণ-নির্বিশেষে ও প্রশাসনের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।

About admin

Leave a Reply