Home / প্রচ্ছদ / সাম্প্রতিক... / ধর্ম / ঈদগাঁওতে নিহত প্রবাসী মনজুর আলমের জানাযা সম্পন্ন

ঈদগাঁওতে নিহত প্রবাসী মনজুর আলমের জানাযা সম্পন্ন

httpনিজস্ব প্রতিনিধি; ঈদগাঁও :

কক্সবাজার সদর উপজেলার ঈদগাঁওর মাইজ পাড়ায় শ্বশুর পক্ষের লোকজনের অমানবিক প্রহারে নিহত হওয়া মঞ্জুর আলমের জানাজা সম্পন্ন হয়েছে। জানাযায় বিপুল সংখ্যক শোকার্ত মানুষের উপস্থিতি ঘটে।

২৩ মে সকাল ৯টায় চৌফলদন্ডী ইউনিয়নের নতুন মহাল বাজারস্থ জামে মসজিদ নিহত মনজুর আলমের জানাযা অনুষ্টিত হয়ছে বলে তারই নিকটাত্মীয় সাদ্দাম জানিয়েছেন।

এ জানাযায় অংশ নেন, চৌফলদন্ডী ইউপি চেয়ারম্যান ওয়াজ করিম বাবুল, কক্সবাজার সদর আ,লীগ সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল করিম মাদু, সাংগঠনিক সম্পাদক, ইউপি চেয়ারম্যান প্রাথী মুজিবুর রহমান, যুগ্ম সম্পাদক বদিউল আলম আমির, মেম্বার মোস্তফা কামাল, নয়না পরিবার ট্রাস্টের সভাপতি হাসান মুরাদ আনাচসহ এলাকার অসংখ্য নানা শ্রেনী পেশার লোকজন। নিহত মঞ্জুর আলম চৌফলদন্ডীর ৮ নং ওয়ার্ড ঘোনা পাড়ার মৃত আব্দুল গনির পুত্র।

প্রসঙ্গত, শুক্রবার (২১মে) সকালে ঈদগাঁওর উত্তর মাইজ পাড়ায় শশুর পক্ষের লোকজন দিবালোকে হত্যার উদ্দেশ্যে মঞ্জুর আলমকে নির্মমভাবে মারধর করে। পরে স্থানীয়রা তাকে ঘটনাস্থল থেকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। জেলা সদর হাসপাতালে মঞ্জুর আলমের শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে ২২মে সকালে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করে। চট্টগ্রাম নেওয়ার পথে দুপুর ১২টার দিকে পথিমধ্যে মঞ্জুর আলম শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন।

নিহত মঞ্জুর আলম দীর্ঘদিন সৌদিআরবে প্রবাসে কাটিয়েছেন। সৌদীআরব প্রবাস জীবনে যা আয় করেছেন, তা বাংলাদেশে অবস্থানরত তাঁর দ্বিতীয় স্ত্রী রুনা আক্তারের নামে পাঠাতেন। তাঁর স্ত্রী নিজের নামে ঈদগাঁও উত্তর মাইজ পাড়ায় কিনেছেন জমি। আর সেখানেই বানিয়েছেন ভবনও। সম্প্রতি করোনা পরিস্থিতির কারণে ছুটিতে আসার পর আর বিদেশ যাওয়া হয়নি মঞ্জুর আলমের। এরই মধ্যে স্বামী স্ত্রীর মাঝে পারিবারিক কলহ দেখা দেয়। স্বামীর সাথে দূরত্ব বাড়তে থাকেন স্ত্রী রুনা আক্তারের। এক পর্যায়ে শুক্রবার সকালে স্ত্রী রুনা আক্তারের বাবা, মা, ভাই বোনসহ সবাই মিলে হত্যার উদ্দেশ্যে মঞ্জুর আলমকে ব্যাপক মারধর করে। যার একটি ভিডিও সর্বত্রই ভাইরাল হয়ে পড়ে।

Leave a Reply

%d bloggers like this: