Home / প্রচ্ছদ / সাম্প্রতিক... / কবে হবে ঈদগাঁও বাজার ব্যবসায়ী পরিচালনা পরিষদের নির্বাচন?

কবে হবে ঈদগাঁও বাজার ব্যবসায়ী পরিচালনা পরিষদের নির্বাচন?

 

নিজস্ব প্রতিনিধি; ঈদগাঁও :

কক্সবাজার জেলা সদরের ঈদগাঁও বাজার ব্যবসায়ী পরিচালনা পরিষদের নির্বাচন কবে হবে? এমন প্রশ্নে ঘুরপাক খাচ্ছে সচেতন ব্যবসায়ী মহলের মাঝে। দীর্ঘকাল ধরে বাজারের নেতৃত্ব শূন্যতায় ভোগছে ব্যবসায়ীরা।

প্রাপ্ত তথ্য মতে, জেলা সদরের গুরুত্ববহ ঈদগাঁও বাজার পরিচালনার কাজে সঠিক ও দক্ষ নেতৃত্ব না থাকায় বাজারের বহু ব্যবসায়ীরা চরমভাবে ভোগান্তিতে দিন পার করছে। বলতে গেলে জনবহুল এ ঐতিহ্যবাহী বাজারটি বর্তমানে অভিভাবকহীন হয়ে পড়ছে। পরিকল্পিত ড্রেনেজ ব্যবস্হা না থাকায়, পানি নিস্কাশন অব্যবস্থাপনায় রয়েছে। যা বর্ষা মৌসুমে বৃষ্টি ও ঢলের পানি চলাচল করতে না পারায় বাজার এলাকায় হাটু পরিমাণ পানিতে নিমজ্জিত থাকে। এমনকি এ বাজারের ব্যবসায়ীরা চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভোগছে।

ঈদগাঁও বাজারের প্রধান সড়ক সহ অলিগলি জুড়েই প্রায় সময় যানজটে নাকাল হয়ে পড়ে। আবার অসাধু ব্যবসায়ীরা ফুটপাত দখল করে যত্রতত্র স্হানে ব্যবসা বাণিজ্য করে যাচ্ছে। পাশাপাশি মাছ বাজারে বাল্বের সাহায্য পচা মাছ তাজাকরনে বিকিকিনি করে যাচ্ছে ব্যবসায়ীরা। মাছ কিনে বাড়ীতে গেলেই পরিবারের লোকজনের হরেক রকমের বকুনি শুনতে হয়। এ বাজারের ব্যবসায়ীরা নানান সমস্যায় সম্মুখীন হচ্ছে প্রতিনিয়ত। এসব দেখার এবং কঠোর হাস্তে দমন করার জন্য দক্ষ ও শক্ত একটি নির্বাচিত কমিটি এখন সময়ের গণ দাবীতে পরিণত হয়ে পড়েছে। বহুদিন ধরে এ বাজার কমিটির নির্বাচন তো দূরের কথা, আহবায়ক দিয়ে পার করেছে কয়েক বছর। তারপর চলতি বছরের এপ্রিলের মাঝামাঝি সময়ে বাজার পরিচালনা পরিষদের আহবায়ক কমিটি কর্তৃক ব্যবসায়ী জসিম উল্লাহ মিয়াজীকে প্রধান করে একটি নির্বাচন কমিটি গঠন করে। ওই কমিশনকে তিন মাসের মধ্য বাজারের নির্বাচন করার জন্য সময়সীমা বেঁধে দেওয়া হয়।

পরবর্তীতে বাজারের নির্বাচন কমিশন ঈদগাঁও বাজারের প্রত্যকটি ব্যবসা প্রতিষ্টানে কমিশনের প্রধান সহ সদস্যদের সাক্ষর যুক্ত বাজারের নির্বাচনী এরিয়া ও নিয়ম কানুন বিষয়ক একটি লিফলেট প্রেরন করেন। তারপর ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে একশত টাকার বিনিময়ে ভোটার ফরম এখনো বিক্রি অব্যাহত রয়েছে।

তবে সচেতন ব্যবসায়ীদের মতে, ঈদগাঁও বাজারের নির্বাচনী পরিবেশ কি এ পর্যন্ত ও সৃষ্টি হয়নি! নির্বাচনের তাফশীল ও ঘোষনা হয়নি। বহু কাজকর্ম এখনো অসম্পন্ন রয়েছে।

অন্যদিকে বাজারে দ্রুত নির্বাচন দিয়ে নানান সমস্যা সমাধানে নির্বাচিত কমিটির নেতৃত্বে সকলকে উন্নয়ন কাজে ঐক্যবদ্ধ হয়ে এগিয়ে আসার আহবান তরুন ব্যবসায়ী আরিফ উল্লাহর। আবার বাজারের একাধিক ব্যবসায়ী জানান, ঈদগাঁও বাজারে এখনো পর্যন্ত কোন ধরনের নির্বাচনী পরিবেশ তৈরী করতে পারেনি কমিশন।

অপরদিকে বাজার টাইলস ব্যবসায়ী ছৈয়দ করিমের মতে, বাজারের উন্নয়ন আর সমস্যা সমাধানের স্বার্থে বাজার কমিটির নির্বাচন অতীব গুরুত্বপূর্ণ। তাই অতিসত্তর নির্বাচনের পরিবেশ সৃষ্টি করার আহবান জানান কমিশনের প্রতি। স্বর্ণ ব্যবসায়ী সিরাজুল ইসলামের মুঠোফোনে সংযোগ না তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি। ঈদগাঁও বাজারের নির্বাচন বিষয়ে কমিশনের সদস্য শওকত আলমের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ব্যস্ত আছেন বলে লাইন কেটে দেন।

অপরদিকে কমিশনের আরেক সদস্য তারেক আজিজের মুঠোফোন যোগাযোগ করা হলে তিনি আসন্ন শীত মৌসুমের দিকে নির্বাচন দেওয়ার প্রক্রিয়া রয়েছে বলে জানান।

অন্যদিকে কমিশনের সদস্য রাজিবুল হক চৌধুরী রিকো জানান, নির্বাচন হবে, তবে সিদ্বান্ত নিয়ে পরবর্তীতে দিন তারিখ ঘোষনা করা হবে। আবার কমিশনের প্রধান ব্যবসায়ী জসিম উল্লাহ মিয়াজীর মোবাইলে সংযোগ না পাওয়ায় বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

Leave a Reply

%d bloggers like this: