Home / প্রচ্ছদ / সাম্প্রতিক... / কুতুবদিয়ার মানুষকে প্রাকৃতিক দূর্যোগের সময় উদ্বাস্তু হতে হবে না -এমপি আশেক

কুতুবদিয়ার মানুষকে প্রাকৃতিক দূর্যোগের সময় উদ্বাস্তু হতে হবে না -এমপি আশেক

এম.রাসেল খাঁন জয়; কুতুবদিয়া :

গত ১৫ অক্টোবর (রবিবার) সন্ধ্যায় পূর্ব আলী আকবর ডেইল ঘাটঘর এলাকায় কুতুবদিয়া উপজেলা যুবলীগের অর্ন্তগত আলী আকবর ডেইল ইউনিয়ন যুবলীগের উদ্যোগে ঐ ইউনিয়নের ১, ২, ৩, ৫, ৬, ৭ ও ৮ নং ওয়ার্ড কমিটির সম্মেলন ও কাউন্সিল অধিবেশন আলী আকবর ডেইল ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক কাইমূল হুদা বাদশার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।

যুগ্ম আহবায়ক সিরাজুল ইসলাম এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অথিতির বক্তব্যে কক্সবাজার-২ (কুতুবদিয়া মহেশখালী) আসনের সাংসদ আশেক উল্লাহ রফিক বলেন, কক্সবাজারের দ্বীপ উপজেলা কুতুবদিয়ার মানুষকে আর কোন দিন প্রাকৃতিক দূর্যোগের সময় উদ্বাস্তু হতে হবে না। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য ত্বনয়া শেখ হাসিনা কুতুবদিয়ার চতুর পাশে নৌবাহিনীর তত্ত্বাবধানে স্থায়ী বেড়িবাঁধ নির্মাণের জন্য প্রায় ৯৭ কোটি টাকা বরাদ্দ একনেকে পাশ হয়েছে। সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার খুব শিঘ্রই কাজ শুরু করবেন। বাংলাদেশসহ বিশ্বের অন্যান্য দূর্যোগ প্রবণ এলাকার মানুষ প্রাকৃতিক দূর্যোগের সময় উদ্বাস্তু হয়ে বিভিন্ন আশ্রয় কেন্দ্রে আশ্রয় নেয়। স্থায়ী বেড়িবাঁধ হয়ে গেলে কুতুবদিয়ার মানুষকে আর প্রাকৃতিক দূর্যোগের সময় উদ্বাস্তু হতে হবেনা। এছাড়া কুতুবদিয়াকে আধুনিক পর্যটন এলাকা গড়ে তোলা হবে। এবং কুতুবদিয়া হবে বিশ্বের অন্যতম অর্থনৈতিক জোন।

কাউন্সিল অধিবেশনে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি এডভোকেট ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, নির্বাচন আসলে বেগম খালেদা জিয়া ও জামায়াত নেতারা ধর্মের দোহাই দিয়ে সাধারণ জনগণকে ধোকা দিয়ে নিজেকে মুসলমানের পরিচয় দিয়ে নির্বাচনী প্রচারণ করেন। আজকে যখন মায়নমারের মুসলিমরা আক্রান্ত হয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনা মানবিক কারণে বাংলাদেশে আশ্রয় দিয়েছেন,তাদের পাশে দাড়িয়েছেন, তখন মেডম খালেদা জিয়া লন্ডনে বসে এসি রুমে বাতাস খাচ্ছেন আর জামায়াত নেতারা ঢাকায় বসে সরকার পতনের চেষ্ঠা চালিয়ে যাচ্ছেন।আজ তাদের মুসলমানিত্ব কোথায় গেল, তাদের রোহিঙ্গা মুসলিমদের পাশে  দেখা যায়না কেন জাতি আজ তাদের নিকট প্রশ্ন করে।

অধিবেশনে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কুতুবদিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আওরঙ্গজেব মাতবর বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য ত্বনয়া শেখ হাসিনা উন্নয়নের যাত্রা সেই ৯৬ সালে শুরু করেছে মাত্র তার শেষ কোথায় বিশ্বের কেউ জানেনা। আমরা সমুদ্র বিজয় করেছি, সিটমহল বিজয় করেছি, আমরা মধ্য আয়ের দেশে পরিনত হয়েছি। কুতুবদিয়ার সকল রাস্তা ঘাট পাকা করা হবে। এর জন্য টেন্ডার হয়ে গেছে। বিভিন্ন স্কুল কলেজের ভবন নির্মাণের কাজ শুরু হবে। এছাড়াও কুতুবদিয়ায় ৪টি উন্নত মানের জেটি ঘাট নির্মাণ করা হবে খুব শিঘ্রই।

সম্মেলন ও কাউন্সিল অধিবেশন উদ্বোধন করেন উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক আবু জাফর ছিদ্দিকী। সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ও বঙ্গবন্ধু পরিষদ কুতুবদিয়া উপজেলা শাখার সভাপতি শফিউল আলম কুতুবী, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা নূরুচ্ছাফা বি,কম। প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক সেলিম উদ্দিন লিটন। বিশেষ বক্তার বক্তব্য রাখেন, যুগ্ম আহবায়ক আরিফুল ইসলাম।

এতে অতিথি ছিলেন, মহেশখালী উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক সাজেদুল করিম,সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক এড: শেখ কামাল, যুগ্ম আহবায়ক সেলিম উল্লাহ সেলিম, জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি আশহাদ উল্লাহ সায়েম। বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ শহিদুল ইসলাম লালা, নাজেম উদ্দিন লালা, উপজেলা আওয়ামীলীগের শ্রম ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক মিজবাহ উদ্দিন ইকু, আলী আকবর ড়েইল ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর সিকদার, বাস্তুহারালীগ সভাপতি মনির আহম্মদ মাতবর, জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নাজেমুল হক শাকিল, কুতুবদিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি খোরশেদ আলম, সাধারণ সম্পাদক মিজবাহুর রহমান তুহিন, বাস্তুহারালীগ সাধারণ সম্পাদক ডা: ইখতিয়ার উদ্দিন বাবুল, জসিম উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক মো: রাসেল, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ জাহেদ প্রমুখ।

শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলোয়াত করেন ওসমান গণি। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, প্রচার সম্পাদক মোঃ শাহাজাহান সিকদার, আ’লীগ নেতা আব্দুল মোতালেব, এ,টি,এম শাহা আলম কুতুবী, আবু মুছা এম ইউপি, বড়ঘোপ যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক আনোয়ার হোসেন পারভেজ, ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক দিদারুল ইসলাম খোকা, শাখাওয়াত হোসেন, ছাত্রলীগ নেতা সেলিম রেজাসহ সংগঠনের অসংখ্য নেতা-কর্মীরা।

Leave a Reply

%d bloggers like this: