Home / প্রচ্ছদ / সাম্প্রতিক... / অপরাধ, আইন-আদালত / টেকনাফে ১৪ হাজার পরিত্যাক্ত ইয়াবা উদ্ধার

টেকনাফে ১৪ হাজার পরিত্যাক্ত ইয়াবা উদ্ধার

প্রতিকী ছবি

গিয়াস উদ্দিন ভুলু; টেকনাফ :
কক্সবাজারের টেকনাফ সাবরাং ইউনিয়নের শাহপরীরদ্বীপ থেকে ১৪ হাজার মালিকবিহীন ইয়াবা উদ্ধার করেছে বিজিবি। তবে ইয়াবা পাচারকারীরা কৌশলে অন্ধকারের দ্রুত দৌঁড়ে নাফ নদীতে লাফ দিয়ে সাঁতরিয়ে মিয়ানমারে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়েছে।

উদ্ধারকৃত ইয়াবা ট্যাবলেটগুলো ব্যাটালিয়ন সদরে জমা রাখা হয়েছে। যা পরবর্তীতে উর্দ্ধতন কর্মকর্তা, মাদকদ্রব্য অধিদপ্তরের প্রতিনিধি, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও মিডিয়া কর্মীদের উপস্থিতিতে ধ্বংস করা হবে।

বিজিবি সুত্রে জানা যায়, মিয়ানমার থেকে ইয়াবার পাচারের একটি বড় চালান সাবরাং ইউনিয়নের শাহপরীরদ্বীপ জালিয়াপাড়া নাফ নদী দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে পারে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে শাহপরীরদ্বীপ বিওপির নায়েক মো. মনিরুল ইসলামের নেতৃত্বে একটি বিশেষ টহল দল ৪ আগস্ট ভোর রাতে দ্রæত নাফনদীর কেওড়া বাগানে অবস্থান নেয়। এর পর ভোর রাত ৩ টার দিকে একজন লোককে লুঙ্গি দ্বারা মোড়ানো একটি প্যাকেট হাতে করে নাফ নদীর কিনারা দিয়ে আসতে দেখে টহলদল তাকে চ্যালেঞ্জ করে। আকস্মিক বিজিবি টহলদলের উপস্থিতি লক্ষ্য করা মাত্রই ইয়াবা পাচারকারী অন্ধকারের সুযোগ নিয়ে দ্রুত দৌঁড়ে নাফ নদীতে লাফ দিয়ে সাঁতরিয়ে মায়ানমারে পালিয়ে যায়। পরে টহলদল ইয়াবা পাচারকারী কর্তৃক ফেলে যাওয়া প্যাকেটটি তল্লাশী করে ৪২ লক্ষ টাকা মূল্যমানের ১৪ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করতে সক্ষম হয়।

টেকনাফ ২ বিজিবি’র অধিনায়ক লে: কর্ণেল এস এম আরিফুল ইসলাম জানান, উদ্ধারকৃত ইয়াবা গুলো ব্যাটালিয়ন সদরে জমা রাখা হয়েছে, যা পরবর্তীতে উর্দ্ধতন কর্মকর্তা, মাদকদ্রব্য অধিদপ্তরের প্রতিনিধি, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও মিডিয়া কর্মীদের উপস্থিতিতে ধ্বংস করা হবে।

Leave a Reply

%d bloggers like this: