Home / প্রচ্ছদ / সাম্প্রতিক... / মহাসড়কের ৩৯ কিলোমিটার জুড়ে নানা স্লোগানে মুখর বিএনপি নেতা-কর্মীরা

মহাসড়কের ৩৯ কিলোমিটার জুড়ে নানা স্লোগানে মুখর বিএনপি নেতা-কর্মীরা

খালেদা জিয়ার মানবিক সফর নির্বাচনী শো-ডাউনে পরিণত চকরিয়ায়

 

মুকুল কান্তি দাশ; চকরিয়া :

রোহিঙ্গাদের দেখতে মানবিক সফরে বিএনপি’র চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। সাবেক প্রধানমন্ত্রী মানবিক এ সফর কক্সবাজারের চকরিয়ায় নির্বাচনী শো-ডাউনে রুপ পায়।

হাজার হাজার নেতা-কর্মী সমর্থক ব্যানার-ফেস্টুর-প্লেকার্ড ছাড়াও কাঁচা ধান চারা বান্ডিল নিয়ে মিছিলে-স্লোগানে মুখরিত থাকে আড়াই ঘন্টা। মহাসড়কের চকরিয়া অংশের আজিজনগর থেকে খুটাখালী পর্যন্ত ৩৯ কিলোমিটার জুড়ে দীর্ঘ লাইন ধরে বিএনপি কর্মীর অপেক্ষায় থাকে তাদের নেত্রীকে এক পলক দেখতে। এসময় মহাসড়কে গণপরিবহণ চলাচলে দুর্ভোগের সৃষ্টি হয়।

সরজমিন ঘুরে দেখা গেছে, রবিবার বেলা ২টায় সড়ক ছিল ফাঁকা। এসময় স্টেশন কেন্দ্রীক অর্ধ শতাধিক স্পটে মোতায়েন ছিল পুলিশ। এর পর থেকে ছোট ছোট মিছিল নিয়ে বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদল-সেচ্ছাসেবকদল, শ্রমিক দলের নেতা-কর্মীরা সড়কে জড়ো হতে শুরু করে। বিকাল ৩টায় পুরো ৩৯ কিলোমিটার সড়ক বিএনপি কর্মীদের দখলে যায়। লোকে-লোকারণ্য হয় সর্বত্র। বিকাল ৪টা পর্যন্ত বিএনপি’র নেতারা সড়কে জড়ো হওয়া কর্মীদের শৃঙ্খলায় রাখতে পারলেও এরপর নিয়ন্ত্রণহীন হয়ে পড়ে সড়কের অবস্থা। এ কারণে  সোয়া এক ঘন্টা মহাসড়কে গণপরিবহণ দূর্ভোগ নেমে আসে। ভোগান্তিতে পড়ে যাত্রীরা।

বিকাল ৪টায় খালেদা জিয়া কক্সবাজারের প্রবেশ মুখ চকরিয়ার আজিজনগরে প্রবেশ করলেও চকরিয়া পৌরশহরে পৌছতে লেগে যায় সোয়া এক ঘন্টা। পথে পথে স্লোগানে মুখরিত কর্মীদের সাথে হাত নেড়ে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন গাড়ির সামনের সিটে বসা খালেদা জিয়া।

তিনি বিকাল ৫টা ১৫ মিনিটে চকরিয়া পৌরশহর পৌছেন। এসময় হাজার হাজার বিএনপি নেতা-কর্মীরা সড়কের দু’পাশে দাঁড়িয়ে স্লোগানে মুখরিত হয়ে উঠে এবং তাদের নেত্রীকে শুভেচ্ছা জানালে খালেদা জিয়াও হাত নেড়ে সবাইকে শুভেচ্ছা জানান।

চকরিয়া থেকে খালেদা জিয়ার গাড়ি বহরে যোগ দেন সাবেক যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী সালাহউদ্দিন আহমদের সহধর্মীনি ও চকরিয়া-পেকুয়া আসনের সাবেক সংসদ সদস্য এ্যাডভোকেট হাসিনা আহমেদ। খালেদা জিয়ার সাথেও অগ্রবর্তী একাধিক টিমে দু’শতাধিক গাড়ির বহর ছিল।

উখিয়াস্থ রোহিঙ্গা ক্যাম্পে মানবিক সফরে খালেদা জিয়া যাওয়া পথে চকরিয়ায় বিএনপি নেতা-কর্মীরা আগাম নির্বাচনী শো-ডাউন করে। তার বহি প্রকাশ ঘটায় উপস্থিতি ও স্লোগানে।

একাধিক নেতা বলেন, কয়েক বছর ধরে কোন নেতা-কর্মী একসাথে মিছিল-মিটিং করতে পারিনি চকরিয়ায়। চেষ্টা করলেও পুলিশি বাঁধার মুখে পড়তে হয়েছে।

রবিবার আমরা যেন নতুনভাবে স্বাধীনতা পেয়েছি। নিশ্চিন্তে মিছিল করতে পারছি। বিএনপি’র কেন্দ্রীয় নেতা ও সাবেক যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী সালাহউদ্দিন আহমদের অনুপস্থিতিতেও তার অনুগত কর্মীরা সড়কে উপস্থিত হয়ে জানান দিয়েছে চকরিয়া-পেকুয়া বিএনপি’র ঘাটি।

Leave a Reply

%d bloggers like this: