Home / প্রচ্ছদ / সাম্প্রতিক... / টেকনাফে বিজিবির সংবাদ বর্জনের সিদ্ধান্ত

টেকনাফে বিজিবির সংবাদ বর্জনের সিদ্ধান্ত

গিয়াস উদ্দিন ভুলু; টেকনাফ :

টেকনাফে বৈষম্যমূলক আচরণের প্রতিবাদে বিজিবির সংবাদ বর্জনের সিদ্বান্ত নিয়েছে সাংবাদিকেরা। ২৬ অক্টোবর বিকালে টেকনাফ থানার মাথিনের কূপস্থ মিলনায়তনে প্রেসক্লাব ও কর্মরত সাংবাদিকদের এক জরুরী মতবিনিময় সভা উপদেষ্টা সদস্য আশেক উল্লাহ ফারুকীর (দৈনিক কর্ণফুলী) সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।

এতে উপস্থিত ছিলেন টেকনাফ প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি জাবেদ ইকবাল চৌধুরী (দৈনিক আজাদী), সাবেক সহসভাপতি মাওঃ তাহের নাঈম (দৈনিক কক্সবাজার-৭১), সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ (বাংলাদেশ বেতার), সাবেক সাধারণ সম্পাদক নুরুল করিম রাসেল (দৈনিক যুগান্তর, মোহনা টেলিভিশন, আজকের দেশবিদেশ), সাবেক যুগ্ম সম্পাদক নুরুল হক (দৈনিক সংবাদ, সৈকত), সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক হুমায়ুন রশিদ (দৈনিক হিমছড়ি), প্রেসক্লাবের সদস্য আব্দুল্লাহ মনির (দৈনিক আমাদের সময়), সাবেক দপ্তর সম্পাদক ডাঃ কায়সার পারভেজ চৌধুরী (দৈনিক আমাদের কক্সবাজার), সাবেক তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আব্দুস সালাম (বাংলাভিশন, দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন), টিভি জার্নালিস্ট সোসাইটির আহবায়ক নুরতাজুল মোস্তফা শাহীন শাহ (আর টিভি, দৈনিক ভোরের কাগজ), কর্মরত সাংবাদিক আমান উল্লাহ আমান (দৈনিক মানবজমিন), মোঃ শাহীন (দৈনিক সকালের কক্সবাজার), গিয়াস উদ্দিন ভুলু (দৈনিক আজকের কক্সবাজার), ফরহাদ আমিন (দৈনিক আমাদের অর্থনীতি), রাশেদ মাহমুদ রাশেল (দৈনিক আলোকিত সময়), যুগ্ম সম্পাদক জিয়াবুল হক (দৈনিক সুপ্রভাত বাংলাদেশ), জিয়াউল হক জিয়া(দৈনিক সাগরদেশ), মোঃ শহিদুল্লাহ (দৈনিক ইনানী) শামসুদ্দীন  (দৈনিক কক্সবাজার ৭১) প্রমূখ।

উক্ত মতবিনিময় সভায় উপস্থিত কর্মরত সংবাদকর্মীবৃন্দ আলোচনা স্বাপেক্ষে সিদ্বান্ত নেন যে, গণমাধ্যমের একমাত্র স্বীকৃত সংগঠন প্রেসক্লাব কর্মকর্তাদের সাথে কর্মরত বিজিবির দায়িত্বশীলদের মধ্যে তথ্য আদান-প্রদান, চোরাচালান প্রতিরোধসহ সীমান্তের বিভিন্ন পরিস্থিতি নিয়ে মতবিনিময় অব্যাহত ছিল। সম্প্রতি টেকনাফে ২বিজিবির বিভিন্ন কর্মকান্ডে টেকনাফ প্রেসক্লাব ও জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ সংবাদ মাধ্যম প্রতিনিধিদের সাথে সমন্বয়হীনতার কারণে দূরত্ব বৃদ্ধি পাচ্ছে। সম্প্রতি প্রেসক্লাব ও টেকনাফ ২ বিজিবির দায়িত্বশীলদের মধ্যে যোগাযোগ ও সমন্বয়হীনতার অভাব পরিলক্ষিত হচ্ছে। ২৬অক্টোবর টেকনাফ ২বিজিবি ব্যাটালিয়নের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠানে রহস্যজনক কারণে প্রেসক্লাব সদস্যদের আমন্ত্রণ জানানো হয়নি। এসব কারণে প্রতীয়মান হয় যে, সীমান্ত সুরক্ষায় নিয়োজিত টেকনাফস্থ ২বিজিবির সাথে টেকনাফে কর্মরত সাংবাদিকদের মধ্যে বৈষম্যমূলক আচরণের বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে। সাংবাদিকদের সাথে এধরনের বৈষম্যমূলক আচরন কাম্য হতে পারে না বিধায় আগামীতে সংশোধনী না আসা পর্যন্ত বিজিবির সংবাদ বর্জনের সিদ্বান্ত গৃহীত হয়।

Leave a Reply

%d bloggers like this: