শনিবার, ২০ অগাস্ট ২০২২, ০৭:৫৬ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
বিএনপির জন্য অপেক্ষা করবে নির্বাচন কমিশন বঙ্গোপসাগরে ট্রলার ডুবি, ১৭ জেলে উদ্ধার সুদানে বন্যায় ৭৭ জনের মৃত্যু বিশ্বের প্রথম ২০০ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা আনল মটোরোলা  লামায় গৃহবধূর মৃত্যু নিয়ে ধূম্রজাল লামায় বিদ্যুৎ যাচ্ছে অটোরিকশা-টমটমের পেটে লামায় ৬৯ লিটার চোলাই মদসহ ব্যবসায়ী আটক ১ ঈদগড়ের চালক শহিদুল হত্যাকান্ডে আটক আসামীদের জামিন না মঞ্জুর এবং পলাতক আসামীদের গ্রেফতারের দাবী জানিয়েছেন অসহায় পিতা শুভ জন্মাষ্টমী আজ সারা দেশে সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে রামুতে আ’লীগের সমাবেশ অনুষ্ঠিত দেশব্যাপী সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে ঈদগাঁওতে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ

বাংলাদেশেও কমছে জ্বালানি তেলের দাম

http://coxview.com/wp-content/uploads/2015/08/Oil1.jpg

Oilএবার বাংলাদেশেও কমছে জ্বালানি তেলের দাম। আগামী সেপ্টেম্বর মাসেই আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে সমন্বয় করে স্থানীয় বাজারে সব ধরনের জ্বালানি তেলের দাম পুননির্ধারণ করা হবে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

এক বছরের বেশি সময় ধরে বিশ্ব বাজারে জ্বালানি তেলের দাম কমতে থাকায় এটা স্পষ্ট, মূল্য সমন্বয় করলে বাংলাদেশের বাজারে তেলের দাম কমবে।

সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে সফররত আইএমএফ নির্বাহী পরিচালক রাকেশ মোহনের সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে মুহিত বলেন, “ইন্টারন্যাশনাল মার্কেটে জ্বালানি তেলের দাম ভালোই কমেছে। আমাদেরকেও রিভাইজ করতে হবে।

“সে জন্য জ্বালানি বিভাগকে সার্বিক বিষয় বিশ্লেষণ করে একটা পেপার তৈরি করতে বলা হয়েছে। তারা পেপারটি তৈরি করলে সেই পেপারের আলোকেই অয়েল প্রাইস পুনর্র্নিধারণ করা হবে।”

কবে তা করা হবে- জানতে চাইলে তিনি বলেন, “জ্বালানি বিভাগ পেপারটি তৈরি করুক। জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিতে প্রধানমন্ত্রী ২৩ সেপ্টেম্বর যুক্তরাষ্ট্র যাবেন, আমিও যাব। তার আগেই তেলের দাম পুনর্র্নিধারণ করা হবে।”

ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের শুক্রবারের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিশ্ববাজারে কমতে কমতে প্রতি ব্যারেল অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের দাম ৪০ ডলারের নিচে নেমে এসেছে। ২০০৯ সালের মার্চের পর এই প্রথম জ্বালানি তেলের দাম এত নিচে নামল।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক বাজার ওয়েস্ট টেক্সাস ইন্টারমিডিয়েটে (ডব্লিউটিআই) গত শুক্রবার প্রতি ব্যারেল অপরিশোধিত তেলের দাম ছিল ৩৯ ডলার ৮৬ সেন্ট।

ইউরোপের বাজারে অপরিশোধিত তেলের দামও ২০০৯ সালের মার্চের পর্যায়ে নেমে এসেছে। শুক্রবার প্রতি ব্যারেল বিক্রি হয় ৪৫ ডলার ৪৬ সেন্টে।

বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের দাম এক বছরেরও বেশি সময় ধরে কমলেও স্থানীয় বাজারে কমায়নি সরকার। তেলের দাম না কমানোর যুক্তি হিসেবে অর্থমন্ত্রী বার বার আগের ভর্তুকি কমিয়ে আনার কথা বলছিলেন।

বিভিন্ন সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলছিলেন, “বছর বছর লোকসান দিতে দিতে বিপিসি একটি ‘জঞ্জাল’ প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে। সেই জঞ্জাল দূর করতেই তেলের দাম কমানো হচ্ছে না।”

সরকারের জ্বালানি তেল আমদানি ও বিপণনকারী সংস্থা বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশনের চেয়ারম্যান এ এম বদরুদ্দোজা বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের দাম কমায় গত বছরের ডিসেম্বর থেকে সব ধরনের তেল বিক্রি করে মুনাফা করছে বিপিসি।

সর্বশেষ ২০১৩ সালে সমন্বয়ের সময় বাড়ানো হয়েছিল জ্বালানি তেলের দাম। বর্তমানে প্রতি লিটার অকটেন ৯৯ টাকা, পেট্রোল ৯৭ টাকা, কেরোসিন ও ডিজেল ৬৮ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

-শীর্ষ নিউজ,ডেস্ক।

https://www.facebook.com/coxview

Design BY Hostitbd.Com