সাম্প্রতিক....
Home / প্রচ্ছদ / রূপ লাবণ্য / বৃষ্টির দিনে চুলের যত্ন

বৃষ্টির দিনে চুলের যত্ন

https://i0.wp.com/coxview.com/wp-content/uploads/2023/06/Life-style-Hair-Care.jpg?resize=540%2C300&ssl=1

অনলাইন ডেস্ক :

গ্রীষ্মের প্রচণ্ড তাপদাহের মাঝেই থেমে থেমে বৃষ্টি যেন জানান দিচ্ছে বর্ষাকাল আসন্ন। দেখতে দেখতে নতুন বছরের বর্ষা ঋতু চলে আসছে। এই রোদ তো এই বৃষ্টি। বৃষ্টির দিনে চুল ভিজে গেলে বেশ অস্বস্তি হয়। আর একবার বৃষ্টিতে ভিজলেই তা শুকাতে যত ঝামেলা। ভেজা চুল সময়মতো না শুকালে চুলে গন্ধ হয়। এই তীব্র রোদ তো আবার এই বৃষ্টি। রোদ-বৃষ্টির খেলার এই সময়ে চুল নিয়েও সমস্যায় পড়তে হয় অনেক। অনেক সময় চুল শুকাতেই চায় না।

চুলের অপরিচ্ছন্নতার কারণেও কিছু সাধারণ সমস্যা হয়ে থাকে। এর মধ্যে অন্যতম উজ্জ্বলতা ও মসৃণতা কমে যাওয়া।

তাই বৃষ্টির দিনে চুলের যত্নে করণীয় কী তা নিয়ে নিম্নে আলোচনা করা হলো:

* বর্ষাকালে স্বাভাবিকভাবেই বাতাসে আর্দ্রতার মাত্রা বেশি থাকে। বাতাসের আর্দ্রতাজনিত কারণে চুলে আঠালোভাব দেখা দিলেও অন্তত দুই দিন পরপর শ্যাম্পু করতে হবে। বর্ষাকালে স্কাল্প অতিরিক্ত তৈলাক্ত থাকে তাই চুলকে হেলদি রাখতে সপ্তাহে ৪-৫ দিন চুল কোন মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

* স্যাঁতসেতে আবহাওয়ায় চুল বেশি পড়ে। আর মাথায় দেখা দেয় তৈলাক্ত খুশকি। এ সময় সপ্তাহে দু-তিনবার শ্যাম্পু করা উচিত।

* বৃষ্টির পানি মাথায় লাগলে অবশ্যই চুল ধুয়ে ফেলতে হবে। কারণ বৃষ্টির পানি বেশি সময় মাথায় থাকলে মাথার তালু ও চুলের গোড়ায় ফাংগাল ইনফকেশন হতে পারে।

* চুল ধোয়ার পর তাড়াতাড়ি শুকিয়ে ফেলতে হবে।

* বৃষ্টিভিজা চুলের জন্য গরম তেল মালিশ খুবই ভালো। এ ক্ষেত্রে মাথার তালুতে আঙুল দিয়ে ঘষে ম্যাসেজ করুন। তারপর গরম পানিতে তোয়ালে ভিজিয়ে মাথায় ভাপ নিতে পারেন।

* এক চামচ ভিনেগার, আধাকাপ টক দই ও একটি ডিম মিশিয়ে চুলে লাগিয়ে আধা ঘণ্টা পর ধুয়ে ফেলুন।

* বৃষ্টির সময় ছাড়াও চুলের যত্নে সপ্তাহে অন্তত একবার চুলে মেহেদি, পেঁয়াজের রস, লেবুর রস, ডিম এবং টক দইয়ের প্যাক লাগিয়ে আধা ঘণ্টা রেখে শ্যাম্পু করুন। এতে তৈলাক্ত খুশকির সমস্যা অনেকাংশে দূর হবে।

* প্রাকৃতিক নিয়মে চুলে উজ্জ্বলতা বাড়াতে চাইলে মেথি বেঁটে সারারাত পানিতে ভিজিয়ে রেখে পরে শুধু পানিটা ছেঁকে নিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। প্রতি সপ্তাহে খুব সহজ একটি হেয়ার মাস্ক ব্যবহার করুন। একটি কলা আর সাথে কয়েক চামচ এভোক্যাডো একসাথে মিশিয়ে চুলে ৩০ মিনিট দিয়ে রেখে পরে চুল শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন। এতে চুল খুব ঝরঝরে থাকবে স্যাঁতস্যাঁতে আবহাওয়াতেও।

* এই মৌসুমে চুলে সহজেই আঠালো ভাব দেখা দিলেও, প্রতিবার শ্যাম্পুর পর অবশ্যই কন্ডিশনার ব্যবহার করতে হবে। কারণ বর্ষাকালে চুল বাতাসের জন্য উসকোখুসকো ও শুষ্ক হয়ে থাকে। যা সহজেই চুলে জট বাঁধতে ও চুল ভেঙে ফেলতে পারে। কন্ডিশনারের ব্যবহার চুলকে পুরো মৌসুম জুড়ে কোমল রাখতে কাজ করবে।

Share

Leave a Reply

Advertisement

x

Check Also

দৈনিক যুগান্তরের কক্সবাজার প্রতিনিধি জসিম উদ্দিনের পিতার মৃত্যু : বিভিন্ন মহলের শোক

  নিজস্ব প্রতিনিধি; ঈদগাঁও : দৈনিক যুগান্তরের কক্সবাজার জেলা প্রতিনিধি জসিম উদ্দিনের পিতা হাজী নূর ...

https://coxview.com/coxview-com-footar-14-12-2023/