Home / প্রচ্ছদ / সাম্প্রতিক... / নির্বাচন সংক্রান্ত / ইসির সঙ্গে সংলাপে বসবে কখন কোন দল

ইসির সঙ্গে সংলাপে বসবে কখন কোন দল

আরও ১২টি দলের সঙ্গে সংলাপ সূচি চূড়ান্ত করেছে নির্বাচন কমিশন। সেই সঙ্গে পর্যবেক্ষক, নারী নেত্রী ও সাবেক নির্বাচন কমিশনারসহ বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে মতবিনিময়ের দিনক্ষণও নির্ধারণ করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২৬ সেপ্টেম্বর) ইসির অতিরিক্ত সচিব মোখলেসুর রহমান এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ৩১ জুলাই সংলাপ শুরু করেছি আমরা; অক্টোবরের মধ্যে সবার সঙ্গে সংলাপ শেষ করতে সব তারিখ চূড়ান্ত হয়েছে। এক সপ্তাহ সময় হাতেও রাখা হয়েছে।

আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টিসহ শেষ ধাপের আরও ১২টি দল এবং পর্য‌বেক্ষক, নারী নেত্রী ও নির্বাচন বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে ২২, ২৩ ও ২৪ অক্টোবর বৈঠক সূচি নির্ধারণ করা হয়েছে।

ইসি কর্মকর্তারা জানান, বিতর্কিত হওয়ায় সাবেক নির্বাচন কমিশনারদের মধ্যে বিচারপতি এম এ আজিজ কমিশনের কাউকে আমন্ত্রণ না জানানো হতে পারে।

আরও ১২টি দলের সংলাপ সূচি:

৯ অক্টোবর: জাতীয় পার্টি।

১০ অক্টোবর: সকালে বিকল্পধারা বাংলাদেশ; (বিকালে ইসলামী ঐক্যজোট-পুনঃনির্ধারিত)।

১১ অক্টোবর: সকালে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি; বিকালে বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি।

১২ অক্টোবর: সকালে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি; বিকালে গণতন্ত্রী পার্টি।

১৫ অক্টোবর: বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি।

১৬ অক্টোবর: সকালে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ; বিকালে বাংলাদেশের সাম্যবাদী দল (এমএল)।

১৮ অক্টোবর: ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ।

১৯ অক্টোবর: সকালে জাতীয় পার্টি-জেপি; বিকালে লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি-এলডিপি।

এরপর ২২ অক্টোবর পর্যবেক্ষক, ২৩ অক্টোবর নারী নেত্রী এবং ২৪ অক্টোবর নির্বাচন বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে মত বিনিময় করবে ইসি।

সংলাপ বাকি রয়েছে আরও ৮ দল:

২ অক্টোবর: সকাল ১১টায় বাংলাদেশ মুসলিম লীগ; বিকাল ৩টায় বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন।

৪ অক্টোবর: সকাল ১১টায় বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশন; বিকাল ৩টায় বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি (বিজেপি)।

৫ অক্টোবর: সকাল ১১টায় বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ), বিকাল ৩টায় জাকের পার্টি।

৮ অক্টোবর: সকাল ১১টায় জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি); বিকাল ৩ টায় জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ)।

সংলাপ শেষ হয়েছে:

ইসি ঘোষিত কর্মপরিকল্পনা নিয়ে ৩১ জুলাই নাগরিক সমাজের প্রতি এবং ১৬ ও ১৭ অগাস্ট গণমাধ্যমের প্রতিনিধিদের সাথে মতবিনিময় করা হয়েছে।

২৪ অগাস্ট: সকালে বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্ট-বিএনএফ (পুননির্ধারণের আবেদন); বিকালে বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোট।

২৮ অগাস্ট: সকালে বাংলাদেশ মুসলিম লীগ-বিএমএল; বিকালে খেলাফত মজলিশ।

৩০ অগাস্ট: সকালে বাংলাদেশ বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি;বিকালে জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি- জাগপা।

১০ সেপ্টেম্বর: সকালে বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট; বিকালে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ।

১২ সেপ্টেম্বর: সকালে বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস; বিকালে ইসলামী ঐক্যজোট পুননির্ধারণের আবেদন)।

১৪ সেপ্টেম্বর: সকালে কল্যাণ পার্টি; বিকালে ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ।

১৭ সেপ্টেম্বর: সকাল ১১টায় ঐক্যবদ্ধ নাগরিক অন্দোলন; বিকাল ৩টায় বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি।

১৮ সেপ্টেম্বর: সকালে বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি (বাংলাদেশ ন্যাপ); বিকালে প্রগতিশীল গণতান্ত্রীক দল (পিডিপি)।

২০ সেপ্টেম্বর: সকালে গণফ্রন্ট; বিকালে গণফোরাম।

২১ সেপ্টেম্বর: সকালে জামিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ; বিকেলে ন্যাশনাল পিপলস পার্টি (এনপিপি)।

একাদশ সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে আইন সংস্কার, সীমানা পুনঃনির্ধারণসহ ঘোষিত রোডম্যাপ নিয়ে কে এম নূরুল হুদা নেতৃত্বাধীন নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে সংলাপ করছে।

 

 

সূত্র:deshebideshe.com

Leave a Reply

%d bloggers like this: